বেলের জোড়া গোলে জিতল রিয়াল

Baleনিজস্ব প্রতিবেদক: তিন সপ্তাহে একটি ড্র, দুটি হার এবং লা লিগার পয়েন্ট টেবিলে বার্সেলেনোর পেছনে চলে যাওয়া; স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের এতটাই করুণ অবস্থা! এমনকি অনেক সমর্থক তো রোনালদোকে পর্যন্ত সেরা একাদশে চাইছিলেন না আর। ধুয়ো ধ্বনিও শুনতে হয়েছিল তাকে।

অবশেষে জয়ের দেখা মিললো। হতাশাজনক তিনটি সপ্তাহ কাটানোর পর ফের জয়ের কক্ষপথে ফিরল রিয়াল মাদ্রিদ। হান্ড্রেড মিলিয়ন ম্যান গ্যারেথ বেলের জোড়া গোলে লা লিগায় লেভান্তেকে ২-০ গোলে হারাল লজ ব্লাঙ্কোজরা। নিজে গোল না পেলেও বেলের গোল দুটির পিছনে অবদান ছিল ফিফা বর্ষসেরা ব্যালিন ডি’অর জয়ী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর।

রবিবার ঘরের মাঠ স্যান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ম্যাচের প্রথমার্ধেই বেল বাজিয়ে গোল আদায় করে নেয় রিয়াল। একদিন আগেই মেসির জোড়া গোলে এইবারকে হারিয়ে রিয়ালের চেয়ে ৪ পয়েন্ট এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে ব্যবধান ১ পয়েন্টে নামিয়ে আনতে তাই জয় ছাড়া বিকল্প ছিল না রিয়ালের সামনে। তাছাড়া টানা দুটি হারের ধাক্কা সামলে ছন্দে ফেরাটাও জরুরি ছিল রোনালদো-বেল-বেঞ্জেমাদের। তার ওপর দরজায় কড়া নাড়ছে ‘এল ক্ল্যাসিকো’। বারুদে ঠাসা ওই গড়ে দিতে পারে এবার লা লিগার ভাগ্য। ম্যাচটির আগেও জয় খুব প্রয়োজন ছিল রিয়ালের।

Ronaldo1রোববার রাতে দলকে জয়ের কক্ষপথে আনতে দলে পরিবর্তন আনেন কোচ কার্লো আনচেলত্তি। চোট কাটিয়ে ফেরার পর এই প্রথম রিয়ালের প্রথম একাদশে দেখা গেলো নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস এবং মিডফিল্ডার লুকা মডরিচকে। আর সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকবার শেষ দুর্গে ব্যর্থ হওয়া ইকার ক্যাসিয়াসের পরিবর্তে দলে ঢোকেন কেইলর নাভাস।

শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ছিল রিয়াল। সুযোগও পেতে থাকেন বেল-রোনালদোরা। অবশেষে ১৮ মিনিটে কাঙ্খিত গোলের দেখা পেয়ে যায় রিয়াল। দলকে এগিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি গোল খরাও কাটান গ্যারেথ বেল। সেই জানুয়ারির পর এই প্রথম গোলের দেখা পেলেন তিনি।

৪০ মিনিটে ব্যবধান বাড়ায় রিয়াল। এবারও গোলদাতা বেল। যদিও গোলটির পেছনে সব কৃতিত্ব ছিল রোনালদোরই। ডি বক্সের ডান দিক থেকে নেওয়া তাঁর জোরালো কোনাকুনি শটটা লক্ষ্যেই ছিল, কিন্তু মাঝ পথে বল বেলের পায়ে লেগে জালে জড়িয়ে যায়।

Ronaldoবিরতির পরও প্রতিপক্ষের রক্ষণে চাপ ধরে রাখে রিয়াল। ৬৪ মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর সহজ দুটি সুযোগ নষ্ট করেন করিম বেঞ্জেমা। রোনালদোর ক্রসে ফরাসি স্ট্রাইকারের প্রথম প্রচেষ্টা পোস্টে বাধা পায়, ফিরতি বলে তাঁর দ্বিতীয় শটটি একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

৭০ মিনিটে হ্যাটট্রিকের সহজতম সুযোগ নষ্ট করেন বেল। বেঞ্জেমার পাস থেকে গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল জালে জড়াতে ব্যর্থ হন তিনি। এই জয়ের সুবাদে রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট দাঁড়াল ২৭ ম্যাচে ৬৪। শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার পয়েন্ট সমানসংখ্যক ম্যাচে ৬৫।