অবশেষে ভারতের স্বান্তনার জয়

216267-(1)নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশাল লজ্জা থেকে বেঁচে গেলো ভারত। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ আগেই হেরে গিয়েছিল। শেষ ম্যাচে ধোনিদের একমাত্র লক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায় কোনমতে ‘বাংলাওয়াশ’ থেকে রক্ষা। অবশেষে স্বান্তনার জয় দিয়ে রক্ষা পেলো সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। শেষ ম্যাচে এসে ৭৭ রানে স্বাগতিক বাংলাদেশকে হারিয়ে স্বান্তনার জয় নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারবে ভারতীয় ক্রিকেটাররা।

টস জিতে ভারতকেই প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। মুস্তাফিজুর রহমানের স্লোয়ার আর কার্টারে প্রকম্পিত থাকলেও শেষ ম্যাচে এসে তাকে বেশ ভালোভাবেই সামাল দিতে সক্ষম হয় ধোনিরা। রোহিত শর্মা আর সুরেশ রায়না ছাড়া আর কেউ উইকেট দেননি মুস্তাফিজকে।

ওপেনার শিখর ধাওয়ানের ৭৫ আর অধিনায়ক ধোনির ৬৯ রানের কল্যানে বাংলাদেশের সামনে ৬ উইকেটে ৩১৭ রানের বিশাল চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয় ভারত। আম্বাতি রাইডু ৪৪ এবং সুরেশ রায়না করেন ৩৮ রান। বাংলাদেশের পক্ষে খরুচে বোলার হলেও মাশরাফি নেন ৩টি উইকেট। মুস্তাফিজ ২টি এবং সাকিব নেন ১টি উইকেট।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই তামিমের উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে শুরু করে বাংলাদেশ। তবে সৌম্য সরকার কিছুক্ষণ গ্যালারিতে আসা দর্শকদের বিনোদন দিতে সক্ষম হন। ৩৪ বলে ৪০ রান করেন তিনি। সাব্বির ৪৩, লিটন ৩৪, নাসির ৩২ রান করে চেষ্টা করেন দলকে টেনে তোলার। কিন্তু ভারতীয় বোলারদের সাঁড়াসি আক্রমণে সেটা আর সম্ভব হয়নি। শেষ পর্যন্ত ৪৭ ওভারে ২৪০ রান তুলতেই অলআউট বাংলাদেশ। ভারত জয় পায় ৭৭ রানে। বাংলাদেশ সিরিজ জিতল ২-১ ব্যবধানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর কার্ড

বাংলাদেশ-ভারত তৃতীয় ওয়ানডে। ভারত: ৩১৭/৬, ৫০ ওভার (ধাওয়ান ৭৫, ধোনি ৬৯, রাইডু ৪৪, রায়না ৩৮, রোহিত ২৯, কোহলি ২৫, বিনি ১৭*, প্যাটেল ১০; মাশরাফি ৩/৭৬, মুস্তাফিজ ২/৫৭, সাকিব ১/৩৩)।

বাংলাদেশ: ২৪০/১০, ৪৭ ওভার (সাব্বির ৪৩, সৌম্য ৪০, লিটন ৩৪, নাসির ৩২, মুশফিক ২৪, সাকিব ২০, আরাফাত ১৪*; রায়না ৩/৪৫, অশ্বিন ২/৩৫, কুলকার্নি ২/৩৪)। ফল: ভারত ৭৭ রানে জয়ী। ম্যাচ সেরা: রায়না।