ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ

নেগি ম্যাজিকে জয় রূপগঞ্জের

SOUMMYA-TAIJUL
ভারতীয় ক্রিকেটার পবন নেগির দুর্দান্ত এক ইনিংসের সুবাদে অবিশ্বাস্য এক জয় পেয়েছে লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। আজ (বুধবার) ফতুল্লায় ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে পেয়েছে ২ উইকেটের নাটকীয় জয়। সুপার লিগে টানা দ্বিতীয় জয়ে রূপগঞ্জ উঠে গেছে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করে ভিক্টোরিয়া ঠিক ৫০ ওভারে অলআউট হয়ে যায় ২৫৮ রান করে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮২ রান করেন মুমিনুল হক। এছাড়া আল আমিন ৬৩, ফজলে মাহমুদ ৪০ ও আব্দুল মজিদ ২৬ রান করেন।

২৫৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৩২ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে রূপগঞ্জ।  এরপর সৌম্য সরকার ও আসিফের ৪৬ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দেয় রূপগঞ্জ। কিন্তু রূপগঞ্জ ইনিংসে আবারও নেমে আসে বিপর্যয়। ৫ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে পরিণত হয় ৬ উইকেটে ৮৩ রানের দলে। রূপগঞ্জের জয়টাকে ¯্রফে অসম্ভবই মনে হচ্ছিল তখন। কারণ জয়ের জন্য রূপগঞ্জের তখনো প্রয়োজন ১৭৬ রান। হাতে উইকেট মাত্র ৪টি। এর মধ্যে একমাত্র ভারতীয় ব্যাটসম্যান নেগিই ছিলেন যা একটু ভরসা করার মতো। বাকি সবাই টেলএন্ডার। কে জানে রূপগঞ্জ নয়, ভিক্টোরিয়াই হয়তো সুপার লিগে টানা দ্বিতীয় জয়ের স্বপ্নে বিভোর তখন!

কিন্তু একটু একটু করে সব হিসাব-নিকাশ পাল্টে দিতে থাকেন আইপিএলে দিল্লির হয়ে খেলা নেগি। অসম্ভবকে সম্ভব করার পথে এই ভারতীয় মোশাররফ হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে সপ্তম উইকেটে গড়েন ১৪৮ রানের জুটি। তাতে মোশাররফের অবদান মাত্র ৪১ রান। বাকি ১০৭ রানই আসে নেগির ব্যাট থেকে। দলীয় ২৩১ রানে মোশাররফ আউট হলেও দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন নেগি। মোশাররফের বিদায়ের পর অষ্টম উইকেটে আলাউদ্দিন বাবুর সঙ্গে তার ২৬ রানের জুটিতে জয় চলে আসে হাতের নাগালে। বাবু আউট হলে তাইজুলকেও মাঠে নামতে হয় বটে; তবে ব্যাট হাতে কিছুই করতে হয়নি তাকে। তার আগেই শ্রীলঙ্কান স্পিনার চাতুরঙ্গা ডি সিলভাকে ছক্কা মেরে নেগি দলের জয় নিশ্চিত করেন ৭ বল বাকি থাকতেই। দিল্লির এই ব্যাটসম্যান শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ক্যারিয়ার সেরা ১২৪ রান করে। তার ৮৯ বলের ইনিংসটার সৌন্দর্যবর্ধনে ছিল ১৩টি চার ও ৪টি ছক্কার মার। দলকে অবিশ্বাস্য জয় এনে দেওয়া ইনিংস খেলার আগে বল হাতেও নিজের কার্যকারিতা দেখিয়েছেন নেগি। ১০ ওভারে ৫৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। ম্যাচসেরার পুরস্কারটি পাওনাই ছিল তার।

নেগি জাদুর কারণেই লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ক্যারিয়ারে চতুর্থ বারের মতো ৫ উইকেট নিয়েও চাতুরঙ্গা ডি সিলভাকে পেতে হয়েছে পরাজয়ের স্বাদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভিক্টোরিয়া : ৫০ ওভারে ২৫৮ (মজিদ ২৬, ফজলে মাহমুদ ৪০, মুমিনুল ৮২, আল-আমিন ৬৩, নাদিফ ৪, ডি সিলভা ১৮, ধীমান ঘোষ ১৩, সৌহরাওয়ার্দি ৪, ডলার ৩*, মাহবুবুল ১, কামরুল রাব্বি ০; আলাউদ্দিন ৬/০, আসিফ ৪৭/১, মোশাররফ ৩৭/০, নাহিদুল ৩২/১, তাইজুল ৪৭/৩, আবু হায়দার ৩২/২, নেগি ৫৪/২)।

রূপগঞ্জ : ৪৮.৫ ওভারে ২৬৪/৮ (মিথুন ১৭, সৌম্য ২৮, নাহিদুল ৭, সাজ্জাদুল ৪, আসিফ ২৩, নেগি ১২৪*, জহুরুল ১, মোশাররফ ৪১, আলআউদ্দিন ১২, তাইজুল ০*; কামরুল ৬৪/১, আল-আমিন ২৫/১, ডি সিলভা ৪৬/৫, সৌহরাওয়ার্দি ৩৮/১, মজিদ ২১/০, মাহবুবুল ৪৪/০, ডলার ২৫/০)।

ফল : লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ২ উইকেটে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : পবন নেগি (রূপগঞ্জ)

Rent for add