ফেডারেশন কাপ ফুটবল

আরামবাগ-বিজেএমসির ফাইনালে ওঠার লড়াই

fed-cup-2016-logoএবারের ফেডারেশন কাপ ফুটবলে সবচেয়ে বড় চমকের নাম আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। এক মৌসুম পর পেশাদার লিগে ফিরে আসা দলটি ফেডারেশেন কাপে একের পর এক চমক উপহার দিয়ে ওঠে এসেছে শেষ চারে। আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে টিম বিজেএমসির বিপক্ষে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বিকেল ৩টা ৪৫ মিনিটে।

গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আবাহনীকে ১-০ গোলে হারিয়ে প্রথম চমকটি উপহার দেয় আরামবাগ। গ্রুপ পর্বের অন্য ম্যাচে তারা সকার ক্লাব ফেনির বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে। যে ধারাবাহিকতা ধরে রেখে কোয়ার্টারে শেখ জামালকে পেনােল্টি শুট আউটে হারিয়ে দেয় সাইফুল বারি টিটুর দলটি। যাদের সামনে এখন ১৫ বছর পর ফেডারেশন কাপের ফাইনালে খেলার হাতছানি। ২০০১ সালে দলটি সর্বশেষ ফেডারেশন কাপের ফাইনালে খেলে।

আরামবাগের মত ওতটা বিস্ময়কর না হলেও বিজেএমসির ফাইনালে ওঠে আসাটাও চম জাগানিয়াই। গ্রুপ পর্বে রহমতগঞ্জের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করার পর মোহামেডানকে হারিয়ে কোয়ার্টারে ওঠে আসে তারা। কোয়ার্টারে হারায় মুক্তিযোদ্ধাকে। ২০১১ সালের পর ফের দলটির সামনে ফেডারেশন কাপের ফাইনালে খেলার হাতছানি।

ফাইনালের আগে  প্রতিপক্ষকে পূর্ণ সম্মান দিয়েই মাঠে নামছেন আরামবাগের কোচ সাইফুল বারি টিটু, ‘সেমিফাইনালে ওঠে আসা কোন দলকে দুর্বল ভাবাটা বড় বোকামি। বিজেএমসি তাদের যোগ্যতা প্রমাণ করেই সেমিফাইনালে এসেছে। তাদের রয়েছে বেশ কিছু অভিজ্ঞ খেলোয়াড়, বিদেশি খেলোয়াড়রাও ভালো। তাদের হালকাভাবে নেওয়া মানেই বিপদ ডেকে আনা। আমি চাই ‘টোটাল টিমওয়ার্ক’।

Rent for add