ইউরো ২০১৬

রোনালদো না লেভানডফস্কি?

Ronaldoআর কিছুক্ষণ পরই ইউরোর প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে (বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়) মার্শেইয়ের বিখ্যাত স্তাদ ভেলোদ্রোমেয় মুখোমুখি হতে যাচ্ছে পতুর্গাল ও পোল্যান্ড। একদিকে পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, অন্যদিকে পোল্যান্ডের লেভানডফস্কি। ইউরোর প্রথম কোয়ার্টারটা তাই শুধু দুই দেশেই নয়, লড়াইটা আসলে রোনালদো আর লেভানডফস্কিরও।

অবশ্য এবারের ইউরোয় বলতে গেলে দুজনের কেউই নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। রোনালদো তাও হাঙ্গেরির বিপক্ষে জোড়া গোল করে পর্তুগালকে দ্বিতীয় রাউন্ডে নিয়ে এসেছেন। কিন্তু লেভানডফস্কি এখনো নিজের ছায়া হয়েই আছেন। চার ম্যাচ পরেও গোল, অ্যাসিস্টের খাতাটা এখনো শূন্য পোলিশ এই স্ট্রাইকারের।তবে সব ‘দোষ’ মাফ হয়ে যাবে যদি প্রায় তিন যুগ পর আজ দলকে বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের শেষ আটে তুললে পারেন।

দুই দলের লড়াইটা রোমাঞ্চকরই হওয়ার কথা। টুর্নামেন্টের অন্যতম সহজ গ্রুপ পেয়েও একেবারেই খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে শেষ ষোলোতে ওঠা পর্তুগীজরা ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে পেয়েছে নতুন উদ্যম। অপরদিকে, পোল্যান্ড বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানীকে রুখে দিয়ে এবং পেনাল্টিতে সুইসদের হারিয়ে এসেছে কোয়ার্টারে। দু দলের মূল তারকা রোনালদো, লেভানডফস্কি নিজেদের ছায়া হয়ে থাকলেও তাদের অভাব অতটা বুঝতে দিচ্ছেননা নানি ও ব্লাশিকওস্কি। তবে আজ পাদপ্রদীপের আলোটা ঠিকই নিজেদের করে নিতে চাইবেন এই দুই উইঙ্গার।

ইউরোতে এই ম্যাচটিই দু দলের প্রথম সাক্ষাৎ। এর আগে বিশ্বকাপে দু দেখায় উভয়ের জয় একটি করে।বিগত ছয় আসরের পাঁচটিতেই সেমিফাইনাল খেলা পর্তুগাল কি পারবে তাদের রেকর্ড অক্ষুণ্ন রাখতে? নাকি প্রথমবারের মত সেমিতে জায়গা করে নিবে বনিয়েক শিষ্যরা?

Rent for add