মেসির ভক্ত বলে কথা

MESSI-FAN
সমুদ্রে এক কিলোমিটার সাঁতরিয়ে মেসির সঙ্গে দেখা করেছেন তার এক ভক্ত। প্রিয় তারকাকে দেখার জন্য অনেক কিছুই করে থাকেন ভক্তরা। স্বপ্নের ফুটবলারকে একটু ছুঁয়ে দেখার জন্য তাঁরা মাঠের ব্যারিকেট টপকে পুলিশের লাঠির বাড়ি হজম করেও পৌঁছে যান অভীষ্ট লক্ষ্যে৷ তবে মহাসমুদ্র সাঁতরে যাওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম৷ নতুন এ ‘পাগলামি’ উপহার দিয়েছেন সুলি নামের এ মেসিপাগল৷

মেসি এখন সপরিবারে ইবিজায় ছুটি কাটাচ্ছেন৷ অধিকাংশ সময় থাকছেন বোটে৷ অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ডাই-হার্ড ফ্যান ও মেসির অন্ধভক্ত সুলিও ভূমধ্যসাগরে বোটে ভেসে বেড়াচ্ছিলেন৷ হঠাৎই তিনি খবর পান যে, তার বোট থেকে এক কিলোমিটার দূরেই রয়েছে মেসির বোট৷ কে আর আটকায় সুলিকে ! বন্ধুদের ফেলেই সমুদ্রে ঝাঁপ মারেন সুলি৷ এক কিলোমিটার পথ সাঁতরে পৌছান মেসির বোটের কাছে৷ সুলি নিজের ফোনটাকে প্লাস্টিক ব্যাগে বেঁধেই সমুদ্রে ঝাঁপ দিয়েছিলেন৷তাঁর উদ্দেশ্য ছিল মেসির সঙ্গে একটা ছবি তোলা৷কিন্তু সুলির ফোটনা সাগরেই তলিয়ে যায়৷

ফ্যানের মুখে পাগলামির গল্প শুনে মেসি নিজেই তাঁকে ইয়টে আমন্ত্রণ জানায়৷মেসি তাঁর সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ গল্পগুজব করে জুসও খাওয়ায় সুলিকে৷মেসি এরপর সুলিকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন যেন সে মেসির ইয়টের স্পিডবোটে চেপেই নিজের ইয়টে ফিরে যায়৷কিন্তু সুলি আসার পথটাই যাওয়ার জন্য বেছে নেন৷

মেসির সঙ্গে দেখা হওয়ার অভিজ্ঞতা ব্যখা করে সুলি বললেন,‘আমি ফোনটা হারিয়েছি ঠিকই৷কিন্তু মেসির সঙ্গে ছবি তুলেছি৷ মেসির সঙ্গে কথা বলে মনে হল না যে, তিনি একজন ওয়ার্ল্ডস্টার৷ অসম্ভব বিনয়ী একজন মানুষ৷ তার আতিথেয়তায় আমি মুগ্ধ৷’

Rent for add