রামচাঁদের মৃত্যুতে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শোক

imagesঘরোয়া ক্লাব ক্রিকেট ইতিহাসের কিংবদন্তী ক্রিকেটার দেশের প্রথম বাঁহাতি স্পিনার রাম চাঁদ গোয়ালা আর নেই। ১৯ জুন শুক্রবার সকালে ময়মনসিংহের নিজ বাসভবনে পরলোকগমন করেছেন। রাম চাঁদ গোয়ালার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

প্রতিমন্ত্রী এক শোক বার্তায় বলেন, দেশের ক্রিকেট ইতিহাসে রাম চাঁদ গোয়ালার নাম স্মরণীয় বরণীয় হয়ে থাকবে। আমি তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করছি।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। গত ৯ জুন তিনি স্ট্রোক করলে ময়মনসিংহের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দুইদিন আগে বাসায় নেয়ার পর শুক্রবার আবারো স্ট্রোক করলে মারা যান তিনি। কিংবদন্তী এই ক্রিকেটারকে নগরীর কেওয়াটখালি মহাস্মশানে সৎকার করা হয়।

স্কুল ক্রিকেট দিয়ে শুরু রাম চাঁদ গোয়ালার। সেসময় ময়মনসিংহ শহরের মত্যুঞ্জয় স্কুলের ক্রিকেট ও ফুটবল দলের অধিনায়ক ছিলেন বাঁহাতি এই স্পিনার। ক্লাব ক্রিকেটের হাতেখড়ি নগরীর পন্ডিতপাড়া ক্লাবের হয়ে। সে সময়ই ঢাকার ক্রিকেটে রামচাঁদ গোয়ালা খেলা শুরু করেন।

স্বাধীনতার আগেই কয়েক বছর ঢাকার ভিক্টোরিয়া ক্লাবের খেলেন। সেখানে ভাল করায় তাকে টেনে নেয় ঢাকা মোহামেডান ক্লাবে। সেখানে ৩/৪ বছর খেলার পর টানা ১৫ বছর খেলেছেন ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটে আবাহনীর হয়ে। এই ক্লাবে খেলেই তার যশখ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে।

আবাহনীর প্রতিষ্ঠাতা শেখ কামালের অনুরোধে এই ক্লাবটিতে নাম লেখান। তাকে সবাই আবাহনী গোয়ালা নামে চিনতেন সবাই। ছয় মৌসুম হয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। তার ঘুর্ণির মায়াজালে বধ হয়েছেন রাণাতুঙ্গা ও অরবিন্দ ডিসিলভার মতো তারকা ক্রিকেটাররা। জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ খেলেছেন তিনি । তবে ক্যারিয়ার শেষ করেছেন গ্রেটার ময়মনসিংহের ক্রিকেট ক্লাব টিএমসিসি’র হয়ে।

ক্রীড়া লেখক সমিতির তিনবারের সেরা খোলোয়ার বাঁহাতি স্পিনার রাম চাঁদ গোয়ালা ছিলেন চির কুমার। ক্রিকেটের সঙ্গেই জীবন বেঁধেছিলেন তিনি। জীবন শায়াহ্ণে তিনি সাকিব আল হাসানের মাঝে নিজের প্রতিচ্ছবি দেখেছিলেন।

Rent for add