for Add

শিরোপাটা ঘরেই রাখতে চায় কিংস

ফেডারেশন কাপের শিরোপাটা ঘরেই রেখে দিতে চায় ঘরোয়া ফুটবলের অন্যতম বিগ বাজেটের দল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। শিরোপা অক্ষুন্ন রাখতে হলে ফাইনালে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডকে হারাতে হবে। এ জয়ের মিশনকে সামনে রেখেই মাঠে নামার অপেক্ষায় কিংস।

আগামীকাল ১০ জানুয়ারি কিংস-সাইফ লড়াই। বিকেল চারটায় খেলা শুরু হবে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম থেকে ওয়ালটন ফেডারেশন কাপের এ ফাইনাল ম্যাচটি টি-স্পোর্টিস সরাসরি সম্প্রচার করবে।

প্রথমবারের মতো ফাইনালে উঠা সাইফকে পাচ্ছে টানা তিনবারের ফাইনালে খেলা কিংস। কাগজ-কলমে এগিয়ে থাকা কিংস এ ম্যাচে জয় নিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হবার পাশাপাশি এএফসি কাপে অংশগ্রহণটাও কনফার্ম করতে চাইছে। তবে সাইফ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে কিংসের সাথে জিততে না পারলেও ফেডারেশন কাপ জয় করতে মরিয়া তারা।

পারফরম্যান্সের বিবেচনায় শক্তিশালী কিংসকে হারানো সত্যিই কঠিন। তবে গোলের খেলা ফুটবলে কোনো কিছুই অসম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে নাটকীয় কিছু ঘটে গেলেও অবাক হবার কিছু নেই। সাইফ তার সর্বোচ্চটা দিয়েই জয়ের চেষ্টা করবে।

তবে কিংস কোচ অস্কার ব্রুজেন ট্রফি জয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী। টিম ওয়ার্কের কারণেই সেই আত্মবিশ্বাসটা জন্মেছে। তিনি বলেন, লক্ষ্য একটাই। ম্যাচ জিততে হবে। চ্যাম্পিয়ন হতে হবে। জয় ছাড়া কিছুই ভাবছি না। জয়ের জন্যই কিংস মাঠে নামবে।

অস্কার ব্রুজেন বলেন, কিংস সবসময়ই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য দল গড়ে। আমরা প্রত্যাশার সেই জায়গাটিার খুবই কাছাকাছি চলে এসেছি। একটি জয়ই আমাদের দরকার। সেই কাঙ্খিত জয় তুলে নিতে ছেলেরা মুখিয়ে আছে।

প্রতিপক্ষ সাইফ সর্ম্পকে অস্কার জানান, ওদের কোচ অত্যন্ত কৌশলী। দলটি তারুণ্যনির্ভর ও গুছিয়ে খেলতে পারে। মাঠের পারফরম্যান্সই আসল। কাজেই ওরা চাইবে ম্যাচ জিততে। আমরাও চাইব জিততে। কাজেই দারুণ একটি উপভোগ্য ম্যাচ হবে।

জয়ের জন্য কিংসের মূল ভরসা চার অতিথি খেলোয়াড়। অর্থাৎ ব্রাজিলিয়ান জনাথান ফার্নান্দেস ও রবসন ডা সিলভা আর আর্জেন্টাইন রাউল বেচাররা। তাদের সাথে রয়েছেন ইরানী খালেদ শাফি। বিশেষ করে তিন লাতিন ফুটবলারের উপরই কিংসের সাফল্য অনেকাংশেই নির্ভর করছে। এছাড়া স্থানীয় অভিজ্ঞদের মধ্যে তপু বর্মন, মাশুক মিয়া জনি, মতিন মিয়ারা তো রয়েছেন। কাজেই সবদিক থেকেই কিংসই আজ ফেবারিট।

for Add