দিলশান একাই হারালেন ইংল্যান্ডকে

Dilshanঢাকা: অসাধারণ অলরাউন্ড পারফরম্যান্স দিয়ে সফরকারী ইংল্যান্ডকে সিরিজের শেষ ম্যাচে একাই হারিয়ে দিলেন লংকান ওপেনার তিলকারত্নে দিলশান। ব্যাট হাতে প্রথমে দিলশান করেন ১০১ রান। আর বল হাতে নেন ৩৭ রানে ৩ উইকেট। তার এমন দুর্দান্ত পারফরমেন্সের ওপরই শেষ ওয়ানডেতে ৮৭ রানে হারিয়েছে শ্রীলংকা।

সাত ম্যাচের লম্বা একটি ওয়ানডে সিরিজ। এক ম্যাচ হাতে রেখে আগেই সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছিল স্বাগতিক শ্রীলংকা। এবার ব্যবধান দাঁড়ালো ৫-২। কলম্বোর আর প্রেমাদাস স্টেডিয়ামে সিরিজের শেষ ম্যাচেও প্রথমে ব্যাট করে সফরকারী ইংল্যান্ডের সামনে বড় রানের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিল অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজরা। ওপেনার তিলকারতেœ দিলশানের সেঞ্চুরিতে প্রথমে ব্যাট করে লংকানদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ৩০২ রান।

আগের ৬ ম্যাচের মধ্যে ৫টিতেই ব্যাট হাতে সরব ছিলেন কুমারা সাঙ্গাকারা। শেষ ম্যাচে এসে জ্বলে উঠলেন দিলশান। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ১৮তম সেঞ্চুরি উপহার দিয়ে স্বাগতিকদের নিয়ে যান বিশাল সংগ্রহের দিকে।
৩০৩ রানের লক্ষে খেলতে নেমে ২১৫ রানেই অল আউট ইংল্যান্ড। তারা খেলেছে মাত্র ৪৫.৫ ওভার। জো রুট সর্বোচ্চ ৮০ রান করেও হার এড়াতে পারেননি। কারণ, অন্য ব্যাটসম্যানরা আর দাঁড়াতেই পারেনি। অন্যদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন ক্রিস ওকস। দিলশান ছাড়াও ৩ উইকেট নেন সেকুগে প্রসন্ন।

এর আগে টস জিতে প্রথমেই ব্যাট বেছে নেয় শ্রীলংকা। মাহেলা জয়াবর্ধনে আর দিলশান মিলে গড়েন ৫৫ রানের জুটি। ২৮ রান করে আউট হয়ে যান জয়াবর্ধনে। এরপর সাঙ্গাকারার সঙ্গে জুটি বাধেন দিলশান। দু’জনের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬৫টি। এ সময় ৩৩ রান করে আউট হয়ে যান সাঙ্গাকারা। এরপর ২০ রান করে ফিরে যান অধিনায়ক ম্যাথিউজ।

দিনেশ চান্দিমালের সঙ্গে জুটি বেধেই ব্যাক্তিগত মাইলফলকে পৌঁছে যান লংকান ওপেনার দিলশান। ১২০ বলে সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি। ৯টি চার আর ১টি বাউন্ডারিতে সাজোনো ছিল তার ইনিংস। এরপর অবশ্য বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। আউট হয়ে গেছেন ১০১ রান করে।

দিলশান ফিরে গেলেও চান্দিমাল আর থিসারা পেরেরা মিলে লংকানদের স্কোর নিয়ে যান ৩০০-এর কোঠায়। ৫৪ রান করে আউট হন পেরেরা। এ সময় অবশ্য সেকুগে প্রসন্নও কোন রান না করে ফিরে যান রান আউট হয়ে। শেষ পর্যন্ত ৫৫ রানে অপরাজিত ছিলেন চান্দিমাল।

ইংলিশদের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন ক্রিস জর্ডান এবং মঈন আলি। একটি উইকেট নেন হ্যারি গার্নি।