সকারকে হারালো রহমতগঞ্জ

Independence-cup

ফেনী সকারকে হারিয়ে স্বাধীনতা কাপ ফুটবলে প্রথম জয় তুলে নিয়েছে রহমতগঞ্জ। আজ (বুধবার) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম খেলায় সকার ক্লাবকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে কালাম বাবুর শীর্ষরা। শুরুতে এগিয়ে গিয়েও পরাজয় বরণ করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে ফেনী সকার ক্লাবকে।

খেলার ১০ মিনিটেই গোল আদায় করে নিয়েছিল লাডি বাবা লোলার শীষ্যরা। সকার অধিনায়ক আকর হোসেন রিদনের ক্রস থেকে দর্শনীয় প্লেসিংয়ে বল জালে জড়ান টুয়াম ফ্রাঙ্ক। প্রথম ম্যাচে আবাহনীকে ১-১ গোলে রুখে দেওয়া দলটিকে তখন বেশ চনমনেই লাগছিল। কিন্তু বিজেএমসির সঙ্গে হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করা রহমতগঞ্জ খেলায় ফিরতে সময় নেয়নি। ২৫ মিনিটে সোহেল মিয়ার গোলে সমতায় ফিরে তারা।

প্রথমার্ধে আর কোন গোল না হলেও রহমতগঞ্জ সুযোগ নষ্ট করেছে বেশ কয়েকটি। ৪৪ মিনিটে সকারের গোল কিপারকে তো একা পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন নুরুল আব্বাস। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুটাও ছিল রহমতগঞ্জের গোল মিসের মহড়া দিয়ে। ৫০-৫১ মিনিটি পরপর তিনটি আক্রমন থেকেও ফরোয়ার্ডদের দৃষ্টিকটু সব ভুলে গোল করতে পরেননি।

rah-vs-soccer

৬৫ মিনিটে নুরুল আব্বাসের ক্রস থেকে সিও জোনাপিও ২-১ এ লিড এনে দেন রহমতগঞ্জকে। ৭১ মিনিটে তারা ব্যবধান ৩-১ করে সেই জোনাপিওর গোলেই। যে গোলটি তার পা থেকে না মাথা থেকে না নিয়ে রহস্যঘেরা। সেটির জন্ম দিয়েছেন কোঙ্গোর এই ফরোয়ার্ড নিজেই। মাঝ মাঠ থেকে বল নিয়ে আগুয়ান গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে ফাকা পোস্টে গড়ানো বলে মাথা লাগিয়ে বল জালে পাঠান তিনি। যা আনন্দ দিয়েছে মাঠে সকল দর্শককে। রহমতগঞ্জ যখন ৩-১ ব্যাবধানে জয় নিয়ে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছিল তখন সকারের হয়ে ব্যবধান কমান তাদের বিদেশি ফরোয়ার্ড টুয়াম ফ্রাঙ্ক। রহমতগঞ্জ মাঠ ছাড়ে ৩-২ এ জয় নিয়ে।

Rent for add