এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ

বুধবার কৃষ্ণাদের সামনে কিরগিজস্তান

bd-girl-football-u-16
পাঁচটি ম্যাচ। বাছাই পর্বের পথটা একেবারে ছোট নয়। যে পথের দুইটি ধাপ ভালোভাবেই পার হয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দল। লক্ষ্যে পৌঁছতে আরও তিনটি ম্যাচে ভালো করতে হবে। বাকি ম্যাচগুলোর ফলাফলের উপরই নির্ভর করছে বাংলাদেশের কিশোরী ফুটবলারদের দৌঁড়টা বাছাই পর্বেই থেমে যাবে, নাকি উঠতে পারবে চূড়ান্ত পর্বে। শেষ পর্যন্ত ফলাফল যাই হোক-প্রথম দুই ম্যাচের পর কিশোরী ফুটবলারদের নিয়ে প্রত্যাশার পারদ তরতর করেই উপরে উঠেছে। প্রত্যাশাটা বাড়িয়েছেন কিশোরী ফুটবলাররাই। তারা যে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি ভালো নৈপূন্য দেখিয়েছেন মাঠে। শক্তিশালী ইরানকে হারিয়ে শুরু, পরের ম্যাচে উড়িয়ে দিয়েছে সিঙ্গাপুরকে। দুই ম্যাচে ৮ গোল-বাংলাদেশের নারী ফুটবলে এক বছর আগেও এমন ভাবার অবকাশ ছিল না। এখন ওরা এতটাই ভালো খেলছে যে, অনেকের তৃপ্ত নন দুই ম্যাচে মাত্র ৮ গোলে! গোলটা অবশ্য বড় ফ্যাক্টরও হতে পারে বাংলাদেশের জন্য।

bd-women-football-team-u-16
টুর্নামেন্ট শুরুর আগে প্রধান প্রতিপক্ষ ভাবা হয়েছিল ইরনাকে। ইরান পর্ব শেষ। বাংলাদেশের এখন প্রধান প্রতিপক্ষ চাইনিজ তাইপে। প্রথম দুই ম্যাচে বাংলাদেশ করেছে ৮ গোল, চাইনিজ তাইপে করেছে ১২ গোল। গোল গড়ে তারা এগিয়ে। অন্য কোনো ম্যাচ না হারলে বাংলাদেশ ও চাইনিজ তাইপের লড়াইটাই হবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন নির্ধারনীর। বাংলাদেশ যদি জিতে যায় তাহলেতো কোনো হিসেবেই প্রয়োজন হবে না-উঠে যাবে চূড়ান্ত পর্বে। আর ম্যাচটি ড্র হলে গোল গড়ে এগিয়ে থাকা দলটি পাবে চূড়ান্ত পর্বের ছাড়পত্র। গ্রুপের সম্ভাব্য সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ন ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ৩ সেপ্টেম্বর। তার আগে আগামীকাল (বুধবার) বাংলাদেশ খেলবে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে। আর চাইনিজ চাইপের প্রতিপক্ষ সিঙ্গাপুর। জয়ের পাশাপাশি বাংলাদেশের লক্ষ্য গোল বাড়ানো। শেষ পর্যন্ত গোল আবার গোলমাল বাধিয়ে না দেয়।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ও কিরগিজস্তানের ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৬ টায়। বিটিভি ওয়ার্ল্ড খেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করবে। ইরান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের ম্যাচটি শুরু হবে বিকাল ৩ টায়। সকাল ১১ টায় মুখোমুখি হবে চাইনিজ তাইপে ও সিঙ্গাপুর।