বিশ্ব খাদ্য সংস্থার শুভেচ্ছা দূত হলেন তামিম ইকবাল

tamim-iqbal-daily-sunবাংলাদেশে বিশ্ব খাদ্য সংস্থার (ডব্লিউএফপি) শুভেচ্ছা দূত নিযুক্ত হয়েছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ১ জুন থেকে তিনি এই দায়িত্ব লাভ করেছেন বলে তা নিশ্চিত করেছে আন্তর্জাতিক এই সংস্থাটি।

কোভিড-১৯ ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই দেশের অভাবগ্রস্ত মানুষ ও অনটনে থাকা ক্রিকেটারদের সহায়তা দিয়ে আসা এই ওপেনিং ব্যাটসম্যান বলেন, জাতিসংঘের খাদ্য সংক্রান্ত সহযোগী সংস্থার শুভেচ্ছা দূত হতে পেরে তিনি সম্মানিত বোধ করছেন।

তামিম বলেন,‘আমার নিজের দেশ বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী ক্ষুধার সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাওয়া জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য সংস্থার শুভেচ্ছা দূত হতে পেরে আমি সম্মানিত বোধ করছি। সেই সঙ্গে সম্মানিত বোধ করছে আমার দেশ বাংলাদেশও।’

জাতীয় দলের এই ওপেনার বলেন,‘ সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশ দারুণ অর্থনৈতিক অগ্রগতি লাভ করেছে। তবে দারিদ্র্যতাকে, বিশেষ করে গ্রামীণ জনগোষ্ঠির আর্থিক দৈন্যতা এখনো কাটিয়ে উঠেনি। কোভিড সংকট তাদের জীবন জীবিকাকে হুমকিতে ফেলে দিয়েছে। আশা করি বিশ্ব খাদ্য সংস্থার উদ্যোগে ক্ষুধার বিরুদ্ধে সংগ্রামে আমি ভুমিকা রাখতে পারব। দেশের অভাবগ্রস্ত জনগোষ্ঠির আমাদের সহযোগিতা ও সমর্থন প্রয়োজন।’

বাংলাদেশের সেরা ওপেনার হিসেবে বিবেচিত তামিম ইকবাল বিশ্ব খাদ্য সংস্থার শুভেচ্ছা দূত হিসেবে দেশের ৬৪ টি জেলায় সচেতনতামুলক কাজে অংশ নিবেন। সেই সঙ্গে কক্সবাজার রোহিঙ্গা অভিবাসন কেন্দ্রসহ দেশের বিভিন্ন স্কুলে খাদ্য সরবরাহ, পুষ্টিবৃদ্ধি ও তাদের জীবনমানের উন্নয়নে উদ্বুদ্ধকরণ কাজে অংশ নিবেন এই দেশ সেরা ব্যাটসম্যান।

এক বিবৃতিতে বিশ্ব খাদ্য সংস্থার বাংলাদেশ প্রতিনিধি ও পরিচালক রিচার্ড রাগান বলেন,‘ তামিম একজন ক্রীড়াবিদ হিসেবে দেশে ও দেশের বাইরে সবার আস্থা অর্জন করেছেন। শুধু জনপ্রিয়তা ছাড়াও তামিমের মধ্যে রয়েছে অসাধারণ নৈতিকতা ও মানবিকতা। বিশ্বখাদ্য সংস্থা পরিবারে তাকে পেয়ে আমরা দারুণভাবে রোমঞ্চিত।বাসস।